Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ২৬ জানুয়ারী ২০২০, ১২ মাঘ ১৪২৬, ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩০ এস-এ ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৬:৪২ পিএম

প্রযুক্তি প্রিয় প্রজন্মের চাহিদার কথা মাথায় রেখে সম্প্রতি বাংলাদেশের বাজারে গ্যালাক্সি এম৩০এস হ্যান্ডসেট নিয়ে এসেছে স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশ। এই ফোনে রয়েছে দেশের সর্বোচ্চ ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি। এছাড়াও ফোনটিতে ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রমের গ্যালাক্সি এম৩০এস ডিভাইসটি ৮.৯ মিলিমিটার পুরুত্বের এবং এটির ওজন মাত্র ১৮৮ গ্রাম। ফলে এটি হাতে ধরতে যেমন স্বস্তিদায়ক, বহনেও তেমনি সুবিধাজনক।

গ্যালাক্সি এম৩০এস-এ রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি স্ক্রিনের ফুলএইচডি+ রেজ্যুলেশনের ইনফিনিটি ইউ সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। আকর্ষণীয় ডিসপ্লের সাথে ওয়াইডভাইন এল-১ সার্টিফিকেশন থাকায় ব্যবহারকারীরা যেকোনো হাই ডেফিনিশন ভিডিও কন্টেন্ট স্ট্রিমিং করে স্বাচ্ছন্দে দেখার সুযোগ পাবেন।

গ্যালাক্সি এম৩০এস-এর অন্যতম আলোচ্য দিক হলো এর ৩টি ব্যাক ক্যামেরার ক্লাস্টারের রেজ্যুলেশন ৪৮ এমপি, ৮ এমপি ৫ এমপি। এদিকে, ফোনের সামনের ক্যামেরাটিতে অ্যাপারচারসহ ১৬ এমপি রেজ্যুলেশন রয়েছে। ৮ এমপি শক্তিশালী ক্যামেরার সঙ্গে ১২৩ ডিগ্রির ফিল্ড ভিউয়ের সাহায্যে চোখে দেখা যায় এমন স্বচ্ছ ছবি তোলা সম্ভব। ৫ এমপি ক্যামেরায় আছে লাইভ ফোকাস ফিচার এবং ১৬ এমপি ফ্রন্ট ক্যামেরা দেবে জীবন্ত সেলফির অনুভূতি।

উচ্চমানের ইমেজ কোয়ালিটির সাথে হাই রেজ্যুলেশন ভিডিও ধারণেও জুড়ি নেই এই ফোনটির। এটি দিয়ে ফোরকে বা আল্ট্রাএইচডি, সুপার স্লো-মো, সুপার স্টেডি এবং হাইপারল্যাপ্সের চোখ জুড়ানো ভিডিও রেকর্ড করা যায়। ডিভাইসটি স্যামসাংয়ের ওয়ান ইউআই ইন্টারফেসের সাথে অ্যান্ড্রয়েড ৯ পাই অপারেটিং সিস্টেমে চলবে। সাথে থাকছে এক্সিনস ৯৬১০ অক্টাকোর প্রসেসর যা সেকেন্ডে ২.৩ গিগাহার্জ পর্যন্ত গতিতে কাজ করতে সক্ষম। মালি জি-৭২ এমপিথ্রি গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট থাকায় গ্রাহকরা রোমাঞ্চকর গেমিং এবং গ্রাফিক্সের অভিজ্ঞতা পাবেন।

এ উপলক্ষে স্যামসাং বাংলাদেশের হেড অব মোবাইল মো. মূয়ীদুর রহমান বলেন, “ক্রেতাদের মাঝে বিশেষ করে তরুণদের কাছে গ্যালাক্সি এম সিরিজের সেটগুলো অভাবনীয় সাড়া ফেলেছে। সে জন্যে গ্যালাক্সি এম৩০এস ডিভাইসটি ‘ডু হোয়াট ইউ কান্ট’ স্যামসাং এই দর্শনের সার্থক প্রতিফলন হতে পারে। আর এটি সম্ভব করতে ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারি যুক্ত করা হয়েছে, যা তরুণ ব্যবহারকারীদের এক চার্জেই জীবন উপভোগের সুযোগ করে দেবে। ফোনটি কিনতে ক্রেতাদের খরচ করতে হবে ২৭ হাজার ৪৯০ টাকা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্যামসাং


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ