Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার , ২০ জানুয়ারী ২০২০, ০৬ মাঘ ১৪২৬, ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

অনশনে মারা গেলেন পাটকল শ্রমিক

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৮:৪১ পিএম

খুলনায় অনশনরত অবস্থায় অসুস্থ হওয়ার পর হাসপাতালে মারা গেছেন রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের শ্রমিক আব্দুস সাত্তার (৪৫)। বৃহস্পতিবার দুপুরে অনশন চলাকালে অসুস্থ হলে আব্দুস সাত্তারকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় মারা যান তিনি। আব্দুস সাত্তার খুলনার প্লাটিনাম জুবিলি জুট মিলের তাঁত বিভাগের স্থায়ী শ্রমিক ছিলেন।
আব্দুস সাত্তারের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওই পাটকলের শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি শাহানা শারমিন।
এদিকে, অনশনে অসুস্থ হয়ে শ্রমিকের মারা যাওয়ার খবরে তার সহকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। তারা লাশ আনতে হাসপাতালে জড়ো হয়েছেন। হাসপাতালে আরো শতাধিক অসুস্থ শ্রমিক চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানিয়েছেন শ্রমিক নেতারা।
প্লাটিনাম জুবিলি জুট মিল শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ূন কবির খান সন্ধ্যায় জানিয়েছেন, আব্দুস সাত্তার মিলের সামনের তাঁবুতে অন্যান্য শ্রমিকের সঙ্গে তিন দিন ধরে আমরণ অনশন করছিলেন। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের ৭-৮নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যার দিকে তার মৃত্যু হয়।



 

Show all comments
  • ** হতদরিদ্র দিনমজুর কহে ** ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১০:১৬ পিএম says : 0
    আমি ও এক দিন খুলনা পাটকল শ্রমিক ছিলাম।বহু শ্রমিক আন্দলনে সমপৃক্ত থেকেছি।জসিমের তাজা রক্তের বিনিময় আমাদের দাবী আদায় হয়েছিল। আজ ও এই শোকাহত দিনে শ্রমিকদের ন্যায্য দাবী মেনে নেওয়ার জন্য বিনিত আহবান যানাচ্ছি।।
    Total Reply(0) Reply
  • ** হতদরিদ্র দিনমজুর কহে ** ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:১৯ পিএম says : 0
    অনশনরত শ্রমিক আঃসাত্তার মারাগেছেন ইনকিলাব পত্রিকায় দেখে খুবই কষ্ট পেলাম। আসলে আন্দলন সংগ্রাম কোন কিছুই কতৃপখ্খ ভ্রুখ্খেপ করছেনা।সংঘতবিহিন অনশন কর্মসুচি কেউ ই আমলে নিলেননা। মানবাধিকার সংগঠন একটু দৃষ্টি দিবেন কি?আর কোন সাত্তার যেনো এ ভাবে ভাগ্যবরন না করে।দাবী মেনে নিন।।।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অনশন


আরও
আরও পড়ুন