Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ব্রাজিলিয়ানদের রাতে উজ্জ্বল জেসুস

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০৮ এএম

ম্যানচেস্টার সিটির শেষ ষোলো নিশ্চিত ছিল আগেই। পরশু ডায়নামো জাগরেবের মাঠে ম্যাচটা ছিল তাই শুধুই আনুষ্ঠানিকতার লড়াই। কিন্তু হ্যাটট্রিক করে এ ম্যাচকেই স্মরণীয় করে রাখলেন সিটি ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল জেসুস। ক্রোয়াট ক্লাবটিকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে সিটি। আর হ্যাটট্রিক দিয়ে নেইমারের রেকর্ড ভেঙেছেন জেসুস।

প্রথমার্ধে একটি এবং দ্বিতীয়ার্ধে দুটি গোল করেন জেসুস। সিটির হয়ে অন্য গোলটি ফিল ফডেনের। ৬ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘সি’ গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোয় উঠল সিটি। তবে জেসুসের জন্য কাল রাতের ম্যাচটা ছিল বিশেষ কিছু। চ্যাম্পিয়নস লিগে ন্যূনতম ১০ গোল করা সর্বকনিষ্ঠ ব্রাজিলিয়ান এখন জেসুস। এ পথে তিনি ভেঙেছেন তার দেশের ফুটবলেরই বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বড় তারকা নেইমারের রেকর্ড। ২৩ বছর ৭৫ দিন বয়সে রেকর্ডটি গড়েছিলেন নেইমার। জেসুস তাঁকে টপকে গেলেন ২২ বছর ২৫২ দিন বয়সে।

নেইমারের ক্লাব পিএসজিও মাঠে নেমেছিল একই রাতে। তুর্কি ক্লাব গালাতসারাইকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ফরাসি ক্লাবটি। চ্যাম্পিয়নস লিগের এ মৌসুমে গোলের খাতা খুলেছেন নেইমার। নিজে গোল করার পাশাপাশি ভূমিকা রেখেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পের গোলেও। তবে গোলের পাশাপাশি একটি দৃশ্য মন কেড়ে নেবে পিএসজি সমর্থকদের।

ম্যাচের ৮৩ মিনিটে পেনাল্টি পায় ফরাসি লিগ চ্যাম্পিয়নরা। নেইমার নিজে পেনাল্টি না নিয়ে বলটা তুলে দেন এডিনসন কাভানিকে। স্পটকিক থেকে ম্যাচের শেষ গোলটি করেন উরুগুয়ে তারকা। অথচ পিএসজিতে যোগ দেওয়ার কিছুদিন পরই পেনাল্টি নেওয়া নিয়ে মাঠেই বাদানুবাদ হয়েছিল নেইমার ও কাভানির। কিন্তু ঘটনাটি দুই তারকাই পেছনে ফেলে এসেছেন। ‘এ’ গ্রুপ থেকে ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষ দল হিসেবেই শেষ ষোলো নিশ্চিত করল পিএসজি।

জেসুস-নেইমারের রাতে নিজেদের মেলে ধরেছেন রিয়াল মাদ্রিদের দুই তরুণ ব্রাজিলিয়ানও। তাদের নৈপুণ্যে প্রথমবারের মতো ক্লাব ব্রুজকে হারাল রিয়াল মাদ্রিদ। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পরশু ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে ৩-১ গোলে জিতেছে জিনেদিন জিদানের দল। অন্য গোলটি করেন লুকা মদ্রিচ। বেলজিয়ান ক্লাবটির বিপক্ষে আগের তিন দেখায় একটিতে হেরেছিল রিয়াল, ড্র হয়েছিল অন্য দুটি।

প্রায় দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে নামা রিয়ালকে শুরুতে নিজেদের মাঠে চেপে ধরে ব্রুজ। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে রিয়ালের জালে বল পাঠিয়েছিল ব্রুজ। কিন্তু ভিএআর দেখে গোল দেননি রেফারি। দ্বিতীয়ার্ধে রদ্রিগোর চমৎকার ফিনিশিংয়ে এগিয়ে যায় রিয়াল। আলভারো ওদ্রিওসোলার ক্রসে দারুণ ভলিতে ৫৩তম মিনিটে জাল খুঁজে নেন তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। দুই মিনিট পরেই সমতা ফেরায় ব্রুজ। ৬৪তম মিনিটে আবার এগিয়ে যায় রিয়াল। এই গোলে ভাগ্যের বেশ সহায়তা আছে। ইয়োভেচির কাছ থেকে বল পেয়ে শট নিতে চেয়েছিলেন রদ্রিগো। তিনি নিয়ন্ত্রণ হারালে ক্লিয়ার করতে চেয়েছিলেন সিমোন ডেলি। তার শটে রদ্রিগোর পায়ে লেগে বল যায় অরক্ষিত ভিনিসিউসের কাছে। খুব কাছ থেকে ঠিকানা খুঁজে নেন এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। ব্রুজে জিতে ১১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করল ইউরোপের সফল দলটি।

লিগের আরেক ম্যাচে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও গনসালো হিগুয়েনের গোলে বায়ার লেভারকুজেনকে হারিয়ে অপরাজিত থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে উঠল রিয়াল মাদ্রিদ। প্রতিপক্ষের মাঠে পরশু ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে ২-০ গোলে জিতেছে জুভরা। দুটি গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে। ৭৫তম মিনিটে গোলের দেখা পায় জুভেন্টাস। আট মিনিট আগে বদলি নামা পাওলো দিবালার বাঁ দিক থেকে বাড়ানো বল অনায়াসে প্লেসিং শটে জালে জড়ান রোনালদো। আসরে পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের এটি দ্বিতীয় গোল। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের রেকর্ড গোলদাতার মোট গোল হলো ১২৮টি। যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হিগুয়েন। ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষস্থান আগেই নিশ্চিত করা বায়ার্ন মিউনিখ শেষ ম্যাচেও জয় পেয়েছে। গত রাউন্ডে নকআউট পর্ব নিশ্চিত করা টটেনহ্যাম হটস্পারকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা। ছয় ম্যাচের সবকটিতে জেতা বায়ার্নের পয়েন্ট ১৮। গ্রুপ রানার্সআপ টটেনহ্যামের পয়েন্ট ১০।
এক নজরে ফল
দিনামো জাগরেব ১-৪ ম্যানসিটি
শাখতার দোনেৎস্ক ০-৩ আতালান্তা
লেভারকুজেন ০-২ জুভেন্টাস
অ্যাট.মাদ্রিদ ২-০ লোকোমোটিভ
বায়ার্ন মিউনিখ ৩-১ টটেনহ্যাম
অলিম্পিয়াকোস ১-০ রেড স্টার
পিএসজি ৫-০ গালাতাসারেই
ক্লাব ব্রুগ ১-৩ রিয়াল মদ্রিদ

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন