Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বরিস জনসন বললেন নির্বাচনের ফল ব্রেক্সিটের জন্য শক্তিশালী ম্যান্ডেট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১১:৪৪ এএম
পাঁচ বছরের মধ্যে তৃতীয় দফায় সাধারণ নির্বাচনের ফল ঘোষণার প্রাক্কালে শুক্রবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, নির্বাচনের ফল ব্রেক্সিটের জন্য নতুন শক্তিশালী ম্যান্ডেট, ব্রিটিশ জনগণ কনজারভেটিভ সরকারকে নতুন ম্যান্ডেট দিয়েছেন। দেশকে ঐক্যবদ্ধ করতে এটা শক্তিশালী নতুন ম্যান্ডেট। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

বুথ ফেরত জরিপে বৃহস্পতিবারের নির্বাচনে টরি পার্টি ঐতিহাসিক জয়ের পথেই রয়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

ইতিমধ্যে নিজ আসনে নিজের বিজয় নিশ্চিত করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

বুথ ফেরত জরিপের ফলে দেখা গেছে, জনসনের কনজারভেটিভ দল ৩৬৮ আসন পেতে চলেছে। ২০১৭ সালের চেয়ে যা ৫০ আসন বেশি।

অন্যদিকে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিরোধীদল জেরেমি করবিনের লেবার পার্টি মাত্র ১৯১ আসন পেতে পারে।

লিবারেল ডেমোক্র্যাটস পেতে পারে ১৩ আসন, স্কটিশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি (এসএনপি) ৫৫ আসন এবং ব্রেক্সিট পার্টি একটি আসনও পাচ্ছে না।

যুক্তরাজ্যে বৃহস্পতিবার সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পরই বুথ ফেরত জরিপে এ আভাস পাওয়া গেছে।

জরিপ পরিচালনা করেছে ইপসোস মোরি। ১৪৪ টি ভোটকেন্দ্রের ২২ হাজার ৭৯০ জন ভোটারের সাক্ষাতকারের ভিত্তিতে এ পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে।

জরিপের ফল সত্য হলে তা হবে ১৯৮৭ সালের পর সবচেয়ে বড় সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে কনজারভেটিভ দলের বিজয়।

আর লেবার পার্টির জন্য ১৯৩৫ সালের পর সবচেয়ে খারাপ ফল। ২০১৭ সালের তুলনায় এবার তাদের আসন ৭১টি কমবে।

যুক্তরাজ্যে বুথ ফেরত জরিপের ফল ভুল হয় না বললেই চলে। গত ৫টি সাধারণ নির্বাচনের মধ্যে কেবল ২০১৫ সালেই একবার বুথ ফেরত জরিপের ফল ভুল হয়েছিল।

সেবার বুথ ফেরত জরিপে বলা হয়েছিল ঝুলন্ত পার্লামেন্ট হতে চলেছে, অথচ প্রকৃত ফলে কনজারভেটিভ দলকে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে দেখা গিয়েছিল।

এবার বুথ ফেরত জরিপের ফল সত্য হলে পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট চুক্তি পাস করিয়ে নিতে সক্ষম হবেন বরিস জনসন। পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট নিয়ে সৃষ্ট যে অচলাবস্থার মধ্যে জনসনের প্রধানমন্ত্রীত্ব শুরু হয়েছিল তার অবসান ঘটবে।

 

 


 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ