Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

অত্যাধুনিক স্টেলথ ফাইটার জেট তৈরির পথে পাকিস্তান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৭:০২ পিএম

এফ-২২ র‌্যাপ্টর, এফ৩৫ লাইটনিং-২ ও চেংদু জে-২০ স্টেলথ ফাইটার জেটের মতো অস্ত্র হাতে থাকা যেকোন দেশের জন্য স্বপ্নের বিষয়। পাকিস্তান বিশ্বের অত্যন্ত অগ্রসর বিমান বাহিনীগুলোর তালিকায় নাম লেখানোর আশা করছে। তাই একান্তভাবেই পঞ্চম প্রজন্মের স্টেলথ ফাইটার জেট তৈরির কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে দেশটি।

পাকিস্তানের অত্যাধুনিক স্টেলথ ফাইটার জেট তৈরির প্রকল্পের নাম ‘প্রজেক্ট আজম’। এই অত্যন্ত উচ্চাভিলাষী এই প্রকল্পের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৭ সালে। এর লক্ষ্য হলো বিশ্বের দ্রুত অগ্রসরমান প্রতিরক্ষা ও বিমান শিল্পের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলা। এই প্রকল্পের আওতায় অ্যাডভান্সড উইপন সিস্টেমের পাশাপাশি এমএএলই ড্রোনও তৈরি করা হবে।

পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা উৎপাদন মন্ত্রণালয়ের ২০১৭-১৮ ইয়ারবুকে বলা হয় যে, কনসেপচুয়াল ডিজাইনের চারটি চক্রের মধ্যে একটি চক্র ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। প্রথম কনফিগারেশন ডিজাইন করা হয়েছে পাকিস্তান বিমান বাহিনীকে যে ধরনের চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করতে হতে পারে তার উপর ভিত্তিক করে। ডিজাইনের আরো তিনটি চক্র সম্পন্ন করতে হবে। হায়ার ফিডালিটি এনালাইসিস টুলস ও কোড ব্যবহার করে এই কনসেপচুয়াল ডিজাইন করা হচ্ছে।

জেনিস ডিফেন্স উইকলিকে এক সাক্ষাতকারে পাকিস্তানের বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মুজাহিদ আনোয়ার খান অবশ্য বলেছেন যে, আগামী এক দশকে হয়তো পাকিস্তানের তৈরি স্টেলথ জঙ্গিবিমান অপারেশনাল হবে না। পাকিস্তানের পঞ্চম প্রজন্মের ফাইটারের ধারণাটি প্রাথমিকভাবে দৃশ্যমান হয় আরআইএটি ২০১৯ প্রদর্শনীতে বিমানবাহিনীর সি-১৩০বি-এর টেইল আর্টে।

এই জেট হবে এফ-১৬এ/বি ব্লক-১৫, মিরেজ-থ্রি ও মিরেজ-ফাইভ-এর উত্তরসূরি। এটা জেএফ-১৭ থান্ডারের চেয়ে বেশি দূরে যেতে ও বেশি বোমা বহন করতে পারবে। পাশাপাশি পাল্টা বিমান হামলা চালানোর উপযুক্ত করে তৈরি করা হবে। এটি সমুদ্র অঞ্চলে অভিযান ও ডিপ-স্ট্রাইক প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে।

এয়ার স্টাফ রিকায়রমেন্ট (এএসআর) অনুযায়ী এটি হবে একটি টুইন-ইঞ্জিন, সিঙ্গেল সিটার জেট। কিছু রিপোর্টে দেখা যায়, পাকিস্তানের পঞ্চম প্রজন্মের জেট তৈরিতে চীন তার চেংদু জে-২২ প্রযুক্তি দিয়ে সাহায্য করতে পারে। সূত্র: এসএএম।

 



 

Show all comments
  • Md.Shafiqul Islam ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৭:২৬ পিএম says : 0
    পাকিস্তানের এ উদ্যোগ মুসলমান হিসাবে আমি খুবই আনন্দ আনুভব করছি
    Total Reply(0) Reply
  • Md.Shafiqul Islam ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৭:২৭ পিএম says : 0
    পাকিস্তানের এ উদ্যোগ মুসলমান হিসাবে আমি খুবই আনন্দ আনুভব করছি
    Total Reply(0) Reply
  • Md Abdul Alim ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:২৩ পিএম says : 0
    মাশাআল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • Md Abdul Alim ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:২৩ পিএম says : 0
    মাশাআল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • Md Abdul Alim ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:২৩ পিএম says : 0
    মাশাআল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • .Mozibor Rahman ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:১৭ এএম says : 0
    It's nice attem agat non Muslims
    Total Reply(0) Reply
  • .Mozibor Rahman ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:১৮ এএম says : 0
    It's nice attem agat non Muslims
    Total Reply(0) Reply
  • .Mozibor Rahman ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:১৮ এএম says : 0
    It's nice attem agat non Muslims
    Total Reply(0) Reply
  • .Mozibor Rahman ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:১৮ এএম says : 0
    It's nice attem agat non Muslims
    Total Reply(0) Reply
  • .Mozibor Rahman ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:১৯ এএম says : 0
    It's nice attem agat non Muslims
    Total Reply(0) Reply
  • pakistan zindabad ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৮:২৮ এএম says : 0
    is verry nicc option
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৮:৫২ এএম says : 0
    Maashallah,agaia jao baki Allah tomader shohai....
    Total Reply(0) Reply
  • Mosharef Hossain ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১০:০৫ এএম says : 0
    সাফল্য কামনা করছি
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন