Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৬ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ব্যর্থতার দায় নিয়ে সরে যাচ্ছেন করবিন

লন্ডনে ৭৩ আসনে ৪৯টিতে জয়ী লেবার, নেতৃত্বে আসছে পরিবর্তন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

ব্রিটেনের নির্বাচনে চমকের পর চমক দেখা দিয়েছে। কনজারভেটিভ পার্টির বিশাল জয়, লেবারের বিপর্যয়কারী হার যেন যথেষ্ট নয়। নিজের কাঁধে পরাজয়ের ভার নিয়ে নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন লেবার প্রধান জেরেমি করবিন। অন্যদিকে, সা¤প্রতিক বছরগুলোয় ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে ওঠা লিবারেল ডেমোক্র্যাটরা প্রত্যাশার বাইরে গিয়ে হারিয়েছে অনেক আসন। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে দলটির সাবেক প্রধান জো সুইনসনের আসন, ইস্ট ডানবার্টনশায়ার। নিজ আসনে হেরেছেন তিনি। হারার পরপরই দলপ্রধান হিসেবে পদত্যাগ করেছেন। তার জায়গায় যৌথভাবে দলের নেতৃত্ব গ্রহণ করেছেন উপনেতা স্যার এড ড্যাভি ও প্রেসিডেন্ট ব্যারোনেস স্যাল ব্রিন্টন। ড্যাভি ও ব্রিন্টন জানিয়েছেন, নতুন বছরে দলের নেতৃত্ব নিয়ে নির্বাচন হবে। অন্যদিকে, সুইনসন নিজের পরাজয় নিয়ে বলেন, আজকের পরাজয় নিশ্চিতভাবেই ব্যাপক হতাশার। আমি গর্বিত যে, লিবারেল ডেমোক্র্যাটস নির্বাচনী প্রচারণায় উন্মুক্ততা, উদারতা ও আশার পক্ষে দাঁড়িয়েছিল। আমরা নিজেদের বিশ্বাসের ব্যাপারে স্পষ্ট ছিলাম। তিনি আরো বলেন, এটা স্পষ্টতই একটি পিছিয়ে পড়া। কিন্তু দেশজুড়ে লাখো মানুষ দলের বিশ্বাসে বিশ্বাস করে। তাদের হয়ে লড়ার জন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, যাতে আমরা একটি ইতিবাচক ভবিষ্যৎ গড়তে পারি। অপরদিকে, ব্রিটেনের জাতীয় নির্বাচনে লন্ডনে মোট আসন ৭৩টি। জাতীয় পর্যায়ে বাজে পারফর্মেন্স করলেও বিরোধী দল লেবার পার্টি এর মধ্যে বিজয়ী হয়েছে ৪৯ আসনে। ফল হয়েছে ২০১৭ সালের মতো। বিবিসির সাংবাদিক স্যাম ফ্রাঁসিস লন্ডন থেকে জানাচ্ছেন, নির্বাচনে আগের চেয়ে লেবার দল তিনটি আসন বেশি পেয়ে মোট আসন হয়েছে ৪৯টি। এখানে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও লেবার নেতা জেরেমি করবিন নিজেদের আসনে বিজয়ী হয়েছেন। লন্ডনে জনসনের কনজারভেটিভ পার্টি বিজয়ী হয়েছে ২১ আসনে। এখানে তীব্র প্রতিদ্ব›িদ্বতাপ‚র্ণ কেনসিংটন আসনটি পেয়েছে তারা। রিচমন্ডে নাটকীয় জয় পেয়েছে লিবারেল ডেমোক্রেটরা। নির্বাচনের আগে তাদের আসন ছিল চারটি। কিন্তু নির্বাচনে সেখান থেকে একটি আসন হারিয়ে তাদের আসন সংখ্যা এখন তিন। সিটিস অব লন্ডন অ্যান্ড ওয়েস্টমিনস্টারে পরাজিত হয়েছেন লিবারের ডেমোক্রেটে যোগ দেয়া মি. উমান্না। অন্যদিকে এই দলের প্রার্থী টম ব্রেক পরাজিত হয়েছেন কার্শালটন অ্যান্ড ওয়ালিংটনে। বিবিসি



 

Show all comments
  • Jamil Hasan ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৩১ এএম says : 1
    সাম্রাজ্যবাদ আর পুঁজিবাদের জন্মস্থানে অতিবাম করবিনের নির্বাচনী কর্মসূচির জন্য লেবার পার্টি ডাহা ফেল করেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Rajib Hossain ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৩১ এএম says : 0
    so sad
    Total Reply(0) Reply
  • আহমেদ রানা ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৩১ এএম says : 0
    নেতার মতো কথা -নতুনদের জায়গা করে দিতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Raihan Bhuiyan ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৩২ এএম says : 0
    আমেরিকা বৃটেনের রাজনীতিতে যারাই ইসরায়েলের বিরুদ্ধে থকবে তারাই হারবে।
    Total Reply(0) Reply
  • তরুন সাকা চৌধুরী ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৩২ এএম says : 0
    বাংলাদেশে হলে তো ক্রেন দিয়েও নামানো যেত না।
    Total Reply(0) Reply
  • ash ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৭:২০ এএম says : 0
    MAN WORLD HAS BEEN CHANGED ! NOW THESE DAYS PEOPLE DOESNT LIKE HONEST PEOPLE LIKE UUUUUUUU !!!!!!!!! THATS PORVEDDDDDDDD
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন