Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার , ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ১০ মাঘ ১৪২৬, ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল পরীক্ষায় বাংলাদেশের ২১ শিক্ষার্থীর টপ ইন ওয়ার্ল্ড অর্জন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৬:১০ পিএম

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল পরীক্ষায় অসাধারণ নৈপুণ্যের জন্য বাংলাদেশের ৮২ জন শিক্ষার্থীকে 'আউটস্ট্যান্ডিং কেমব্রিজ লার্নার অ্যাওয়ার্ড' প্রদান করেছে কেমব্রিজ অ্যাসেসমেন্ট ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন (কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল)। বিশ্বজুড়ে ৪০টিরও বেশি দেশের সর্বোচ্চ ফলাফলধারী শিক্ষার্থীদের এ পুরস্কার প্রদান করা হয়। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ পুরস্কারের জন্য যোগ্য শিক্ষার্থীদের মনোনীত করে। প্রতিবছর বিশ্বব্যাপী দশ লাখ (১ মিলিয়ন) শিক্ষার্থী কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল আয়োজিত বিভিন্ন কোর্স সম্পন্ন করে। প্রতিষ্ঠানটি ১৬০ বছরেরও অধিক সময় ধরে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পরীক্ষা আয়োজন করে আসছে। চলতি বছরের ১৪ ডিসেম্বর রাজধানীর বসুন্ধরায় অবস্থিত বসুন্ধরার আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল এবং ব্রিটিশ কাউন্সিল যৌথভাবে দেশের বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল পরীক্ষায় অসাধারণ ফলাফলের স্বীকৃতি প্রদানের জন্য একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন, ব্রিটিশ কাউন্সিলের পরিচালক টম মিশশা, ডিরেক্টর অপারেশন্স এক্সামিনেশনস জুনায়েদ আহমেদ, কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনালের ডেপুটি ডিরেক্টর (রিজিওনাল ডেভেলপমেন্ট) থমাস কেন্দন, দক্ষিণ এশিয়ার ভারপ্রাপ্ত আঞ্চলিক পরিচালক সত্যজিৎ সরকার, কান্ট্রি ম্যানেজার শাহীন রেজা এবং ব্র্যাকের স্ট্র্যাটিজিক পার্টনারশিপ এবং চট্টগ্রাম গ্রামার স্কুলের অ্যালুমনি ফারিন ইসলাম।

২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল পরীক্ষায় অসাধারণ নৈপুণ্যের জন্য সর্বমোট ৭০ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী মর্যাদাপূর্ণ ‘আউটস্ট্যান্ডিং কেমব্রিজ লার্নার অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন। এই পুরস্কার চারটি শ্রেণিতে ভাগ করা হয়েছে- 'টপ ইন দ্য ওয়ার্ল্ড', 'টপ ইন কান্ট্রি', 'হাই অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড' এবং 'বেস্ট অ্যাক্রোস'।

একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে সর্বোচ্চ নম্বর অর্জন করায় বাংলাদেশের সর্বমোট ২১ জন শিক্ষার্থী 'টপ ইন দ্য ওয়ার্ল্ড' পুরস্কার অর্জন করেন। এই ২১ জন পুরস্কার বিজয়ীর মধ্যে ১৫ জন শিক্ষার্থী গণিতে সর্বোচ্চ নম্বর অর্জন করায় এই পুরস্কার অর্জন করেন। শিক্ষার্থীরা কেমব্রিজ আইজিসিএসই, কেমব্রিজ ও লেভেল এবং কেমব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল এএস এবং এ লেভেল পরীক্ষায় আলাদা আলাদা বিষয়গুলোতে ভালো ফলাফলের জন্য এই পুরস্কার লাভ করে।

ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন বলেন, ব্রিটিশ কাউন্সিল মানসম্মত আন্তর্জাতিক পরীক্ষা আয়োজনে এক দৃষ্টান্তমূলক উদাহরণ প্রদর্শন করে আসছে যা সত্যিকার অর্থে প্রশংসনীয়। বাংলাদেশের ছাত্রছাত্রীদের জন্য সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে তাঁদের জীবনের মান উন্নয়ন এবং ইউকের সর্বোচ্চ শিক্ষা ও সংস্কৃতির সাথে তাঁদের মেলবন্ধন গড়ে তোলবে। এ বছর বাংলাদেশের ছাত্রছাত্রীদের ক্যামব্রিজ পরীক্ষায় যে অর্জন তা এদেশের শিক্ষার মানোন্নয়নের একটি নিদর্শন। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, এই অর্জন তাঁদের জন্য দেশে-বিদেশে সম্ভাবনার এক বিশাল দুয়ারে ধাবিত করবে এবং এর মাধ্যমে তাঁরা বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রাখবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ