Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভারতে এনআরসি তোলপাড়ের মধ্যে মুম্বাইয়ের আদালতের রায়- পাসপোর্ট নাগরিকত্ব প্রমাণে যথেষ্ট

দক্ষিণ-পশ্চিম সীমান্ত থেকে বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৭:১১ পিএম

অনুপ্রবেশকারী বাংলাদেশী হিসেবে আটক দুই বাংলাভাষীর ব্যাপারে মুম্বাইয়ের আদালত রায় দিতে গিয়ে বলেছে, ভোটার কার্ড ও পাসপোর্ট নাগরিকত্ব প্রমাণে যথেষ্ট। এই রায়ের ফলে নতুন করে তৈরী হয়েছে বিতর্ক। রেশন কার্ড, আধার কার্ডসহ অন্যান্য পরিচয়পত্রের বিষয়টি নিয়েই বিতর্ক। আজকাল অনলাইনে রোববার এ খবর দিয়ে বলেছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে তোলপাড় গোটা দেশ। কারা নাগরিক, কারা নাগরিক নয় তা নিয়ে যখন চুলচেরা বিশ্লেষণ চলছে। একইসঙ্গে জ্বলছে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত এমন তপ্ত পরিস্থিতিতে নাগরিকত্বের প্রমাণ হিসেবে ভোটার কার্ড আর পাসপোর্টকে মান্যতা দিল মুম্বইয়ের একটি নিম্ন আদালত। যা নিয়ে এখন জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে।
আদালত সূত্রে খবর উল্লেখ করে পত্রিকাটি লিখেছে, ২০১৭ সালে মহম্মদ মোল্লা (৫৭) এবং সইফুল (২৩) নামে দু’জনকে গ্রেপ্তার করে মুম্বই পুলিশ। সম্পর্কে বাবা–ছেলে মহম্মদ মোল্লা ও সইফুলকে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী হিসেবে আদালতে অভিযোগ করে পুলিশ। এমনকী তাঁরা বেআইনিভাবে অনুপ্রবেশ করেছে বলে অভিযোগ তোলা হয়। ওই দু’জন বাংলা ভাষাতে কথা বলেন এবং তাঁরা এমন কোনও নথি দেখাতে পারেননি যা প্রমাণ করে তাঁরা ভারতীয়। কিন্তু আদালতে দু’জনই ভারতীয় পাসপোর্ট ও ভোটার আইডি কার্ড জমা দেয়।
এই তথ্য পাওয়ার পরই আদালত জানিয়ে দেয়, পাসপোর্ট থাকাটাই যথেষ্ট নাগরিকত্ব প্রমাণের ক্ষেত্রে। একইভাবে ভোটার আইডি কার্ডও দেশের নাগরিক হিসেবে প্রমাণের যথেষ্ট নথি হিসাবে গ্রাহ্য। আদালতের এই রায়ের ফলে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। রেশন কার্ড, আধার কার্ড বা অন্যান্য পরিচয়পত্র নাগরিকত্বের প্রমাণ হিসাবে গ্রাহ্য নয়? এই প্রশ্নই বিতর্কের সূত্রপাত।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এনআরসি

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
১৪ জানুয়ারি, ২০২০
২৮ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন