Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার , ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৪ মাঘ ১৪২৬, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

যশোরে আনসার বাহিনীর সদস্য হত্যা রহস্য উদঘাটন, আটক ৭

যশোর ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

 যশোরে চাঞ্চল্যকর আনসার বাহিনীর সদস্য হোসেন আলী হত্যাকা-ে জড়িত মোট ৭ জনকে পুলিশ আটক করে গতকাল দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিং করেছে। যশোর শহরতলী হাশিমপুর বাজারে প্রকাশ্যে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। ঘটনার পরপরই পুলিশ সুপারের নির্দেশে পুলিশ মাঠে নামে। পারিবারিক কলহ, আধিপত্য বিস্তার এবং খুনের প্রতিশোধ নিতেই যশোরে আনসার বাহিনীর বিশেষ সদস্য হোসেন আলী তরফদার (৫৭) খুন হন বলে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম পুলিশ প্রেসব্রিফিংএ জানান। জানানো হয়, গত ৩০ নভেম্বর সকালে যশোরের হাশিমপুর বাজারে একটি চায়ের দোকানের সামনে ৯-১০জন সন্ত্রাসী হোসেন আলী তরফদারকে গুলি ও ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে হুমায়ুন কবীর যশোর কোতোয়ালি থানায় মামলা (নম্বর ৭৫, ৩০.১১.১৯) করেন। ১২ ডিসেম্বর পুলিশ আমিনুর রহমান নামে মিঠু (৪৬) নামে একজনকে গ্রেফতার করে ও রিমান্ডে নেয়। মামলাটি চাঞ্চল্যকর হওয়ায় অধিকতর তদন্তে এটি গোয়েন্দা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়।
মিঠুর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী অভিযুক্তদের মোবাইলফোন ট্রাকিং করে ১৪ ডিসেম্বর রাতে পুলিশের একাধিক টিম ঢাকার কাফরুল ও ভাসানটেক এলাকায় অভিযান চালায়। সেখান থেকে হত্যাকা-ে জড়িত রাসেল (২৫), আনোয়ার (২৪), হাবিল ওরফে বার্মিজ (২২), বিজয় বিশ্বাসকে (২১) গ্রেফতার করা হয়। এদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী একইরাতে যশোরের হাশিমপুর বাজার থেকে সুজন (২৩) ও সজল (২২) এবং মাগুরার শালিখা উপজেলার আড়পাড়া থেকে আলী রাজ বাবু ওরফে ছোটবাবুকে (২৪) আটক করা হয়।
পুলিশ জানায়, হত্যাকাজে ব্যবহৃত ০২টি মটর সাইকেল, ০১টি চাকু ও আসামিদের ব্যবহৃত ১০টি মোবাইল সেটসহ একাধিক সীমকার্ড । আসামিরা একটি সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীগ্রুপ। তারা এলাকায় চাঁদাবাজ, মাদকদ্রব্য বিক্রয়, ভাড়াটিয়া খুনি হিসেবে চিহিৃত অপরাধমূলক কর্মকা- করে। জুয়েল-মুন্নার নেতৃত্বে এলাকায় একটি কিশোর অপরাধ গ্যাং সৃষ্টি হয়েছে মর্মে তদন্তকালে জানা যায়। এই হত্যার রহস্য উদ্ঘাটনের পাশাপাশি উক্ত কিশোর গ্যাং সদস্যদের আইনের আওতায় আনার জন্য কাজ করছে পুলিশ। উল্লেখ্য, আনসারবাহিনীর সদস্য নিহত হোসেন আলী এক সময় চরমপন্থী সদস্য ছিলেন, পরে অস্ত্র জমা দিয়ে আত্মসমর্পন করে চাকরি পান। হত্যার কয়েকদিন আগে তিনি বাড়িতে এসেছিলেন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আটক

১৫ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ