Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

কারোর কাছে স্বাধীনতা বিক্রি করার জন্য যুদ্ধ করি নাই -মুক্তিযোদ্ধা হাসান সরকার

গাজীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৫:১২ পিএম

গাজীপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার বলেছেন, যুদ্ধ করেছিলাম পিন্ডি থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য। মুক্ত হয়েছিলাম বটে, কিন্তু আজকে বন্ধি হয়েছি দিল্লীর কাছে। দিল্লীর কাছে বন্ধী যে স্বাধীনতা সেই স্বাধীনতা চাই না। তাই আবার লড়তে হবে, লড়ার জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে। তিনি বর্তমান সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, সকলের ত্যাগের ফলেই এদেশ স্বাধীন হয়েছে। কারোর কাছে স্বাধীনতা বিক্রি করার জন্য স্বাধীনতা যুদ্ধ করি নাই।
গাজীপুর মহানগর বিএনপির সহসভাপতি অ্যাডভোকেড ড. সহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও যুগ্ন সম্পাদক আব্দুস সালামের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ডা. মাজহারুল আলম ও মহানগর বিএনপিসাধারণ সম্পাদক মো. সোহরাব উদ্দিন। অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য দেন, মহানগর বিএনপির সহসভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, আক্তারুজ্জামান, অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, জেলা বিএনপির যুগ্ন সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন সবুজ, মহানগর বিএনপির যুগ্ন সম্পাদক বসির আহমেদ বাচ্চু, রাশেদুল ইসলাম কিরণ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম টুটুল, মোতালেব হোসেন, দপ্তর সম্পাদক আব্দুর রহিম খান কালা, গাছা থানা বিএনপির সভাপতি মনিরুল ইসলাম বাবুল, সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন খান, কোনাবাড়ী থানা বিএনপির আহ্বায়ক মো. রবিউল ইসলাম, সদস্য সচিব সাজ্জাদুর রহমান মামুন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শাহীন, অ্যাডভোকেড মনির হোসেন, অ্যাডভোকেড শহীদুল ইসলাম, শামসুদ্দোহা সরকার তাপস, জিল্লুর রহমান মাসুম, নাজমুল খন্দকার সুমন, অ্যাডভোকেড মনিরুজ্জামান, নূর-ই-মোস্তফা খান, নজরুল ইসলাম নাহিদ, আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।
মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার আরো বলেন, গাজীপুরের ছয়দানা মালেকের বাড়ির সম্মুখ সমরে পাক হানাদার বাহিনীর ক্যাপ্টেন নঈমের গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পাই, অপরদিকে আমার পাল্টা গ্রেনেড নিক্ষেপে নঈম ধরাশায়ী হয়। ক্যাপ্টেন নঈমের গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট না হলে হয়তো সেদিনই মারা যেতাম। কিন্তু মহান আল্লার অশেষ রহমতে আজও বেঁচে আছি। জীবন মরণ বাজি রেখে অর্জিত এই স্বাধীনতা রক্ষায় আরেকটি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হওয়ার জন্য তিনি নতুন প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, দিল্লীর পতন শুরু হয়ে গেছে। জীবদ্দশায় খল্ড খল্ড ভারত দেখে যেতে চাই। কারণ, ১৯৬৪ সাল থেকে কাশ্মির জ্বলছে। বর্তমানে মুসলমানদের প্রতি তাদের জুলুম অত্যাচার শেষ পর্যায়ে এসে পৌছেছে। যে দেশের শাসক গোষ্ঠী এ ধরণের অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়, তাদের পতন অনিবার্য।
গাজীপুরে ফ্যান ফ্যাক্টরির অগ্নিকা-ে শ্রমিক হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করে হাসান উদ্দিন সরকার বলেন, গাজীপুরের মাটির ওপর অনেক অত্যাচার জুলুম চলছে। এই মাটি আর সহ্য করতে পারছে না। আজকে স্বাধীনতার মধ্যে গাজীপুরসহ সারা দেশে বিষাধের কালো ছায়া।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ডা. মাজহারুল আলম বলেন, এই ডিসেম্বর মাস আমাদের কাছে যেমন বিখ্যাত তেমনি কুখ্যাতও। কারণ, যে উদ্দেশ্য ও আকাঙ্খা নিয়ে বহু রক্তের বিনিময়ে দেশ স্বাধীন হয়েছিল; ২৯ ডিসেম্বর রাতের নির্বাচনের মধ্য দিয়ে আমাদের বহু আকাঙ্খিত সেই গণতন্ত্র হরণ করা হয়েছিল। এই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত আমাদেরকে পুরোপুরি স্বাধীন বলা যাবে না।
গাজীপুর মহানগর বিএনপিসাধারণ সম্পাদক মো. সোহরাব উদ্দিন বলেন, আমাদের স্বাধীনতা সার্বভৌম আজ চরম হুমকির মুখে। মিয়ানমার তাদের রাখাইন প্রদেশের জনগোষ্ঠীকে বাংলাদেশের ওপর চেপে দিয়েছে। অপরদিকে ভারতের বিতর্কিত নাগরিক পুঞ্জিকে কেন্দ্র করে চলমান অস্থিরতায় আমাদের সীমান্ত এলাকা হুমকির মুখে পড়েছে। এ অবস্থায় দেশ রক্ষায় ১৬ কোটি মানুষকে সীমান্ত জুড়ে মানব ব্যুহ তৈরি করতে হবে।



 

Show all comments
  • ** হতদরিদ্র দিনমজুর কহে ** ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৮:১৫ পিএম says : 0
    স্বাধীনতা যুদ্ধে যারা সত্যি যুদ্ধ করেছেন, তাদের শ্রোদ্ধা করি।আর যারা যূদ্ধ করে নাই,অথচ মূক্তিযোদ্ধা তালিকাভূক্ত হয়ে ভাতা গ্রহন করছে, এদের নিন্দা জানাই।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মুক্তিযোদ্ধা হাসান সরকার
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ