Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মমতার স্পষ্ট ঘোষণা- প্রাণ থাকতে এনআরসি কার্য়কর হতে দেব না

দক্ষিণ-পশ্চিম সীমান্ত থেকে বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৪:১০ পিএম

মঙ্গলবার দ্বিতীয় বারের মতো পথে নেমে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট ঘোষণা দিয়েছেন, প্রাণ থাকতে বাংলায় জাতীয় নাগরিক পঞ্জি এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন তিনি কার্যকর হতে দেবেন না। যাদবপুরের ৮-বি বাসস্ট্যান্ড থেকে মিছিল করে ভবানীপুরের যদুবাবুর বাজার পর্যন্ত যান তিনি। হাজার হাজার মানুষের সামনে সেখানেই এমন বার্তা দেন মমতা। ভারতীয় পত্রিকা এ খবর দিয়েছে।
জানা যায়,মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে মিছিলে শামিল হয়েছিলেন তৃণমূলের দুই তারকা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরত জাহানও। মিছিল শুরুর আগে তাঁদের পাশে নিয়ে মমতা বলেন, ‘‘নাগরিকত্ব আইন, জাতীয় নাগরিক পঞ্জির বিরুদ্ধে যে সব গণতান্ত্রিক আন্দোলন হচ্ছে, সেগুলিকে সহমর্মিতা জানাই। আমরা বাংলায় এনআরসি হতে দেব না। বাংলা ছেড়ে যেতে দেব না কাউকে।’’
সংশোধিত নাগরিকত্ব বিলের বিরোধিতা করে মমতা আসলে সংবিধান বিরোধী আচরণ করছেন বলে গতকালই তোপ দেগেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। কিন্তু এ দিন মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেন, ‘‘বিজেপি ভাবছে দেশ দখল করে নিয়েছি। সংখ্যার জোরে আইন পাশ করানো যায়। কিন্তু মানুষের সমর্থন না পেলে তা কার্যকরী হয় না। সংবিধান মেনে নাগরিকত্ব আইন হয়নি। কবে বিল পাশ হবে, আগে জানানো হয়নি। না জানায় অনেক সাংসদ পৌঁছতে পারেননি’’
বলা হয়, অসমে প্রায় ১৩ লক্ষ মানুষকে বাদ দিয়েছে। ১০০ জন আত্মহত্যা করেছে। বাংলায় আত্মঘাতী হয়েছেন ৩০ জন। এই সব মৃত্যুর দায় কে নেবে?। ১০ হাজার মানুষকে নাগরিকত্ব দেওয়ার নামে ৯ লক্ষ ৯০ হাজার মানুষকে তাড়াানোর পরিকল্পনা।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মমতা

২৩ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন