Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

তুরস্কে ৬ শতাব্দীর প্রাচীন মসজিদ স্থানান্তর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

তুরস্কের একটি প্রাচীন শহর থেকে ৬০৯ বছরের পুরনো একটি মসজিদ আস্ত অবস্থায় আড়াই মাইল দূরে স্থানান্তর করা হলো। মসজিদটির নাম এর-রিজক। মোট ১৭০০ টন ওজনের মসজিদটি একটি বিশেষ মডুলার যান তৈরি করে টাইগ্রিস নদীর তীর ধরে পরিবহন করা হয়।
জানা গেছে, ১৫ শতকের এই মসজিদটির অবস্থান ছিল প্রাচীন হাসানকিফ শহরে। শহরটির কাছেই নির্মিত হচ্ছে ইলিসু বাঁধ। এই বাঁধ নির্মাণের কারণে মসজিদের জায়গাটি প্লাবিত হতে যাচ্ছিল। তাই সেখান থেকে মসজিদটি সড়িয়ে নতুন হাসানকিফ সাংস্কৃতিক পার্কে স্থানান্তর করা হয়েছে।

মসজিদটির মিনারটি নির্মিত হয়েছিল ১৪০৯ সালে, গাজী সালাউদ্দিনের বংশধর ও আইয়ুব শাসনামলের সুলতান ইবুল মেফাহির সুলেমানের নির্দেশে। সেই মিনারটি আলাদাভাবে সরানো হয়েছিল। হাসানকিফের সমস্ত ঐতিহাসিক স্থাপনাই ক্রমান্বয়ে সরানো হচ্ছে যাতে নতুন বাঁধটি নির্মাণের কারণে কোন ক্ষতি না হয়।
ছয়টি স্থাপনা ইতিমধ্যে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। সেগুলো হল, আর্টুকলু হাম্মামখানা (গোসলখানা), সুলতান সোলায়মান কোয়ে মসজিদ, হযরত ইমাম আবদুল্লাহ জাওয়াইয়া ও হযরত জয়নাল আবিদীনের মাজার এবং আইয়ুবি আমলে নির্মিত অপর একটি মসজিদ। এছাড়াও একটি দুর্গের মাঝের প্রবেশদ্বারও এর আগে স্থানান্তর করা হয়েছিল।

ডেইলি সাবাহ এর প্রতিবেদনে বলা হয়, মসজিদটি ছিল হাসানকিফের মধ্যে বৃহত্তম। এটি কয়েক ভাগে আলাদা করে তুলে নিয়ে ২৫৬ চাকার বিশেষ ট্রাকে তুলে আবার একত্রিত করা হয়। এর তত্ত্বাবধানে ছিল রাষ্ট্রীয় হাইড্রোলিক ওয়ার্কস এবং সাংস্কৃতিক সম্পদ ও যাদুঘর বিষয়ক সাধারণ অধিদপ্তর। এটি সাংস্কৃতিক পার্কে আসার পরে পুনর্গঠন করা হয়। এটি পরিবহণ করতে প্রায় সাত ঘন্টা সময় লাগে। সূত্র : ডেইলি মেইল।



 

Show all comments
  • তুষার আহমেদ ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২:২৩ এএম says : 0
    খবরটি পড়ে খুব ভালো লাগলো
    Total Reply(0) Reply
  • OmarFaruq ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:৫৭ পিএম says : 0
    আলহামদুলিল্লাহ প্রিয় নেতা এরদোয়ান আপনাকে অভিনন্দন শুভেচ্ছা জানাচ্ছি আল্লাহ তায়ালা আপনাকে দুনিয়ায় সফলতা ও আখেরাতে পুরস্কৃত করবেন আমিন ইয়া রব্বুল আলামীন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তুরস্ক

৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৬ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন