Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ০৪ রজব ১৪৪১ হিজরী

যে কোন সময় হামলা, ইরান নিয়ে আতঙ্কিত ইসরায়েল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৪:৩৮ পিএম

ইরান থেকে যে কোনো সময় ভয়ঙ্কর হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে ইসরায়েল। শুধু ইরান নয়, ইসরায়েলের চারপাশের দেশগুলো থেকেও হামলা হতে পারে। এসব হামলার নেতৃত্বে ইরানই থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তেল আবিবকে চারপাশ থেকে তেহরান ঘিরে ধরেছে বলে কয়েকদিন আগেই মন্তব্য করেছিলেন ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রধান। এবার দেশটির শীর্ষ সামরিক এক কর্মকর্তা ইরানকে অক্টোপাসের সঙ্গে তুলনা করেছেন। তিনি বলেন, অক্টোপাসের মতো ইসরায়েলকে ধরতে চাচ্ছে ইরান।

নাম প্রকাশ না করে ইসরায়েলের শীর্ষ এক সামরিক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে মঙ্গলবার জেরুজালেমভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য জেরুজালেম পোস্ট জানায়, ইরানকে অক্টোপাসের সঙ্গে তুলনা করেছে ইসরায়েল। এ সম্পর্কে তেল আবিবের শীর্ষ ওই সামরিক কর্মকর্তা বলেন, অক্টোপাসের মাথাটি ইরানে। আর শুঁড় বা পাগুলো ইসরায়েলের চারপাশে ছড়িয়ে আছে। তিনি আরও বলেন, ইসরায়েলকে অক্টোপাসের মতো ধরতে চাচ্ছে ইরান। এজন্য তারা লেবাননে গড়ে তুলেছে হিজবুল্লাহ, সিরিয়ায় ইরানি মিলিশিয়া এবং গাজায় গড়ে তুলেছে হামাস।

ইসরায়েলের শীর্ষ সামরিক ওই কর্মকর্তা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, আমরা অক্টোপাসের মাথা-ইরানকে এখনো হুমকি দেইনি। তবে দ্রুতই তাদের বিরুদ্ধে কার্যক্রম শুরু হবে। নীতি পরিবর্তন হয়ে গেছে। কেউ আমাদের দিনের বেলা হামলা করলে রাতে তারা ঘুমাতে পারবে না।

এর আগে ইসরায়েলকে ইরান চারপাশ থেকে ঘিরে ধরেছে বলে মন্তব্য করেছিলেন ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রধান নাফতালি বেনেত। ইরানের কার্যক্রম বিশ্লেষণ করে এ কথা বলেন তিনি।

নাফতালি বেনেত বলেন, ইরান আমাদের চারপাশে ‘রিং অব ফায়ার’ তৈরি করছে। এটা আর গোপন কিছু নয়। তারা ইতোমধ্যে লেবাননের কাজ সম্পন্ন করেছে। এখন সিরিয়া, গাজা এবং অন্যান্য জায়গায় ক্ষেপণাস্ত্র এবং সরঞ্জামাদি মজুদ করছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরাইল

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৬ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ