Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

তরুণ প্রজন্মই জাতির প্রাণশক্তি -প্রেসিডেন্ট

প্রকাশের সময় : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চবি সংবাদদাতা : তরুণ শক্তপ্রজন্মই জাতির প্রাণ শক্তি, সমাজ পরিবর্তনের প্রধান হাতিয়ার। তাদের অমিত সম্ভাবনাকে বিকাশিত করে জ্ঞানবিজ্ঞানে সমৃদ্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ। তিনি গতকাল রোববার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে এই আহ্বান জানান।
বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলার মো. আবদুল হামিদ বলেন, আমাদের মুক্তিযুদ্ধের লক্ষ্য ছিলো একটি সুখি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলা। এ তরুন প্রজন্মই জাতির প্রাণ শক্তি, সমাজ পরিবর্তনের হাতিয়ার। তাদের অমিত সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে তাদের তথ্য প্রযুক্তি ও জ্ঞান-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ করতে হবে ।
তিনি আরো বলেন আগামী ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্য আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিণত করতে সরকার কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। আর এ কার্যক্রম বাস্তবায়নে থাকতে হবে নিরলস প্রচেষ্টা, আত্মসমালোচনা ও সহযোগিতা। থাকতে হবে কর্তব্য ও দায়িত্ববোধ।
নতুন গ্রাজুয়েটদের সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি দায়িত্ব স্মরণ করিয়ে দিয়ে প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ বলেন, আজকের এই সমাবর্তন তোমাদের যেমন আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দিচ্ছে, তেমনি তোমাদের ওপর দায়িত্বও অর্পণ করছে। সেই দায়িত্ব পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি। মনে রাখতে হবে তোমাদের এ পর্যায়ে নিয়ে আসতে সমাজ ও রাষ্ট্রসহ দেশের খেটে খাওয়া মানুষের অবদান রয়েছে।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এই সমাবর্তনে ৭ হাজার ১৯৪ জনকে বিভিন্ন ডিগ্রি দেওয়া হয়। ২০০৪ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্জন্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ¯œাতক ও ¯œাতকোত্তর ডিগ্রিধারীদের এবং ২০০৮ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত পিএইচডি, এমফিল, এমএস, চিকিৎসা বিজ্ঞান, নার্সিং ও সাধারণ ডিগ্রিধারীদের সনদ ও চ্যান্সেলর পদক দেওয়া হয়।
জাতীয় সঙ্গীতে মাধ্যমে সমাবর্তন অনুষ্ঠান শুরুর পর পবিত্র ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠ করা হয়। এরপর প্রেসিডেন্ট ও চ্যান্সেলর আব্দুল হামিদ সমাবর্তনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এরপরই স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। এরপর ডিগ্রী প্রদান করেন। ডিগ্রী প্রদান শেষে বক্তব্য রাখেন ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান। তারপর সমাবর্তন বক্তব্য প্রদান করেন ইমেরিটাস প্রফেসর ড. আনিসুজ্জামান। প্রেসিডেন্ট পিএইচডি ডিগ্রী অর্জনকারীদের মধ্যে প্রফেসর মোহাম্মদ বশীর আহমেদ, শুকলা রক্ষী ও আব্দুস সালেক মোল্লাকে নিজ হাতে ডিগ্রী প্রদান করেন।
চবির চতুর্থ সামবর্তন অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইউজিসি
চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান, সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইমেরিটাস প্রফেসর ড. আনিসুজ্জামান। এছাড়াও সমাবর্তনে চট্টগ্রামের সাংসদবৃন্দ, সরকারী উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, চবির সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্যবৃন্দ চসিক সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এ বি এম মহীউদ্দিন প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ