Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

হর্ন বাজিয়ে জরিমানা গুণলেন উপসচিব

সচিবালয়ের সামনে একই অপরাধে আরও ১৪ জন দন্ডিত

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

রাজধানীর সচিবালয়ের সামনে আইন অমান্য করে হর্ন বাজানোর দায়ে গাড়ি আটক করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক উপসচিবকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার এ অর্থদন্ড দেন পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রকৌশলী কাজী তামজীদ আহমেদ। এ সময় একই অপরাধে আরও ১৪ জনকে জরিমানা করা হয়। আইন অমান্য করে গাড়ির হর্ন বাজানোর দায়ে ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে প্রায় সাড়ে চার হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত গতকাল সাতটি জিপ ও কার এর ড্রাইভারকে জরিমানা করেন। গাড়ির পাশাপাশি আটটি মোটরসাইকেল এর ড্রাইভারকেও জরিমানা করা হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রকৌশলী কাজী তামজীদ আহমেদ বলেন, শব্দ দূষণরোধে সচিবালয় এলাকাকে নীরব ঘোষণা করা হয়েছে। এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে আমরা অভিযানে নেমেছি। বেশ কয়েকজনকে অপরাধের দায়ে ৪৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।
সরেজমিনে দেখা যায়, সচিবালয়ের সামনের রাস্তায় এক উপসচিবের গাড়ি থেকে হর্নের শব্দ আসলে এগিয়ে যান ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে গাড়িটি আটক করে ৫০০ টাকা জরিমানা করেন। এসময় গাড়ির ড্রাইভিং সিটে উপসচিব নিজেই ছিলেন। যদিও এ কথা অন্যভাবে বলছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের সঙ্গে থাকা পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিভাগের ঢাকা মেট্রো অফিসের সহকারী পরিচালক সাইফুল আশরাব।

তিনি বলেন, হর্ন বাজানোর দায়ে এক উপসচিবের গাড়ি আটক করা হয়েছে ঠিকই। কিন্তু জরিমানা করা হয়েছে গাড়িটির ড্রাইভারকে। এসময় উপসচিব পেছনের সিটে বসা ছিলেন। এর আগে মঙ্গলবার ১৭ ডিসেম্বর শব্দ দূষণরোধে সচিবালয়ের চারপাশ নীরব এলাকা অর্থাৎ ‘নো হর্ন জোন’ এলাকা হিসেবে ঘোষণা করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। তখন তিনি বলেছিলেন, এখন থেকে এলাকাটিতে কোনো গাড়ি হর্ন দিলে আইন অনুযায়ী জেল-জরিমানার আওতায় আসবে। এই আইন অমান্যকারীকে প্রথমে এক মাসের কারাদন্ড বা সর্বোচ্চ ৫হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দন্ড দেওয়া হবে। পরবর্তীকালে ওই অপরাধী একই অপরাধ করলে তাকে ছয় মাসের কারাদন্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত করা হবে। সচিবালয়ের চারদিক বলতে, জিরো পয়েন্ট, পল্টন মোড়সহ সচিবালয় লিংক রোড হয়ে জিরো পয়েন্ট এলাকা পর্যন্ত।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সচিবালয়

৯ জানুয়ারি, ২০১৯
৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

আরও
আরও পড়ুন