Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৭ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

স্যার ফজলে হাসান আবেদের মৃত্যুতে নেটিজেনদের শোক

আবদুল মোমিন | প্রকাশের সময় : ২১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:০৭ পিএম

দেশের শীর্ষ এনজিও ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে হাসান আবেদের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন নেটিজেনরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা শোক বার্তায় তারা মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান এবং তার রুহের মাগফেরাত কামনা করেন।

স্যার ফজলে হাসান আবেদ শুক্রবার রাত ৮টা ২৮ মিনিটে রাজধানীর বসুন্ধরার অ্যাপোলো হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। তিনি স্ত্রী, এক মেয়ে, এক ছেলে এবং তিন নাতি-নাতনি রেখে গেছেন।

বৃহত্তর সিলেটের হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে এক সম্ভান্ত মুসলিম পরিবারে ফজলে হাসান আবেদের জন্ম। আন্তর্জাতিক দাতব্য প্রতিষ্ঠান ব্র্যাক প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে তিনি তার কর্মের পরিধি বিস্তৃত করেছিলেন। ব্র্যাকের বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের নাম ছড়িয়ে দেয়া ফজলে হাসান আবেদ অসংখ্য সম্মাননা ও পুরস্কার পেয়েছেন।

আলামিন রাসেল লিখেছেন, ‘‘ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে হাসান আবেদ আর নেই। বিনম্র শ্রদ্ধা তার প্রতি। গুনি লোকদের কদর এদেশে কোনদিনও ছিল না, ভবিষ্যতেও থাকবে না। সবথেকে ভালো লেগেছে উনি এদেশের কোনো কিছু নিয়ে কখনো মন্তব্য করেনি। তবুও এই লোকটির সমালোচনা থেকে রক্ষা পাইনি।শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা রইলো!’’

আতাউর রহমান লিখেছেন, ‘‘খুবেই দুঃখের। আল্লাহ জান্নাতবাসী করুক।প্রত্যন্ত গ্রামে গ্রামে ব্রাক স্কুল গুলাতে বিনা পয়সায় সরকারি প্রাইমারি থেকে অনেক ভালো পড়াশোনা হতো।’’

‘‘সবার চলে যেতে হবে, সুতরাং মৃত্যুকে ভয় করো, ইসলামের সঠিক পথে চলো’’ লিখেছেন সুমাইয়া ইসলাম।

ইঞ্জি. মিয়া মুহাম্মাদ কাইয়ুম লিখেছেন, ‘‘কিছু কিছু কর্মবীর আমাদের দেশকে দেশ ও বিদেশে সম্মানিত করেছেন, আবেদ স্যার তাদের অন্যতম। তাঁর মৃত্যুতে জাতি এক মহান সন্তানকে হারালো। আমরা প্রয়াত আবেদ স্যারের প্রয়ানে গভীর শোক ও তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি।’’

হাসান মাহমুদ লিখেছেন, ‘‘ভালো দোয়াটা অবশ্যই করি। কারণ জাহান্নামের আযাব সহ্য করার ক্ষমতা কারো নাই।তার কর্মের ফল সে পাবে। আল্লাহ তুমি ক্ষমা করো, সহজ করো তার হিসেব। জঘন্য সুদ থেকে আমাদের রক্ষা করো।’’

‘‘ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। স্যারের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি’’ লিখেছেন শাকিলা পারভীন।

আরিফুল ইসলাম লিখেছেন, ‘‘শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি স্যার আপনাকে, আপনার ব্রাক প্রতিষ্ঠান থেকে আমার প্রাথমিক শিক্ষা গ্রহণ করা। অনেক জোরে যাওয়া শিশু আপনার প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা গ্রহণ করে এখন অনেক ভালো পজিশনে আছে। আপনার জন্য দোয়া করি আল্লাহ যেন আপনাকে জান্নাত দান করেন।’’

মূলত মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী বাংলাদেশের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলে ছোট একটি ত্রাণ কার্যক্রমের মাধ্যমে ১৯৭২ সালে ব্র্যাক প্রতিষ্ঠা করেন স্যার ফজলে হাসান আবেদ। গত ৪৭ বছরে বিশ্বজুড়ে অন্তত ১১ কোটি মানুষের জীবনমান উন্নয়নে ভ‚মিকা রাখার মাধ্যমে ব্র্যাক পরিণত হয় বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ ও কার্যকর বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থায়। ব্র্যাকের উন্নয়ন ব্যবস্থার আওতায় রয়েছে সোশ্যাল এন্টারপ্রাইজ, মাইক্রোফাইন্যান্স, উচ্চশিক্ষা, বিনিয়োগ এবং উন্নয়ন কর্মসূচি। এশিয়া ও আফ্রিকা মহাদেশের ১১টি দেশে বিস্তৃত রয়েছে সংস্থাটির কার্যক্রম। এছাড়াও ব্র্যাকের অ্যাফিলিয়েট কার্যালয় রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে এবং যুক্তরাজ্যে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সোশাল মিডিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ