Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আফগানিস্তানে পুননির্বাচিত ঘানি, আব্দুল্লাহর ফল প্রত্যাখ্যান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২:১০ পিএম

আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৫০ শতাংশের সামান্য বেশি ভোট পেয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসছেন প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। বিক্ষোভ ও কারচুপির অভিযোগে গত ২৮ সেপ্টেম্বরে হওয়া নির্বাচনের ফলাফল প্রায় তিনমাস পর ঘোষণা করতে এতটা দেরি করা হয়েছে।
নির্বাচনে ঘানির অন্যতম প্রতিদ্ব›দ্বী ডা. আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ পেয়েছেন ৩৯ দশমিক ৫২ শতাংশ ভোট। যদিও নির্বাচনী ফল প্রত্যাখ্যান করে আদালতে এর বিরুদ্ধে মামলা করার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এদিকে ঘানি পেয়েছেন ৫০ দশমিক ৬৪ শতাংশ ভোট।
আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ নির্বাচনের এ ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে কারচুপির অভিযোগ তদন্ত করে দেখার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। গতকাল রোববার তিনি নিজ সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, অতীতের মতো এবার আর কারচুপির বিষয়টি মেনে নেবেন না তিনি।
আফগানিস্তানের নির্বাচন কমিশন অবশ্য বলেছে, কারচুপির অভিযোগ তদন্তের পর চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করা হবে। গত সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিকে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অপর দুই প্রার্থী গুলবুদ্দিন হেকমতিয়ার ও রহমতুল্লাহ নাবিল যথাক্রমে চার ও দুই শতাংশ ভোট পেয়েছেন।
এদিকে নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফল ঘোষিত হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি বলেছেন, তার সরকার অতীতের মতো দেশের সব জনগণের সেবা করে যাবে। নির্বাচনে কে কাকে ভোট দিয়েছে সেটি বড় কথা নয়। তিনি জনগণের মধ্যে ঐক্য বজায় রাখার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি সবাইকে আইন মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন।
তবে নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফল নিয়ে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি তালেবান। আব্দুল্লাহর কারচুপির অভিযোগের কারণে চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশে আরও কয়েক সপ্তাহ বিলম্ব হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।
যদি এই ফলাফলই শেষ পর্যন্ত বজায় রাখা হয় তাহলে দ্বিতীয়বারের দেশটির প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন ঘানি। এর আগে ২০১৪ সালের নির্বাচনের পরও দেশটিতে একই সংকট দেখা দেয়। সেবার শেষ পর্যন্ত নির্বাচনের কোনো ফলই ঘোষণা করা হয়নি। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় তখন ক্ষমতা ভাগাভাগিতে সম্মত হন দুই প্রতিদ্ব›দ্বী ঘানি এবং আব্দুল্লাহ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন