Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

পিসিবির জবাব দিল বিসিবি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম


আইসিসির সূচী অনুযায়ী আগামী বছরের শুরুতে পাকিস্তান সফরের কথা রয়েছে বাংলাদেশের। তবে বিসিবি এখন পর্যন্ত কেবল টি-টোয়েন্টি সিরিজের ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিয়েছে পাকিস্তানকে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন জানান, টি-টোয়েন্টি সিরিজের পরই টেস্ট নিয়ে ভেবে দেখবে বিসিবি।

গতকাল সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘পিসিবির আবেগ অনুধাবন করেছে বিসিবি। তবে এখনই এ বিষয়ে কোনো প্রকার সিদ্ধান্তে পৌঁছানো সম্ভব নয়। বাংলাদেশের খেলোয়াড় ও টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে তারা।’

তিনি বলেন, ‘পাকিস্তান অবশ্যই তাদের দেশে পূর্ণ সিরিজটি আয়োজন করতে চাইবে। তবে আমাদের খেলোয়াড় ও টিম ম্যানেজমেন্টের দিকও বিবেচনা করতে হবে। ম্যাচের পরিবেশও আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। পাকিস্তানে লম্বা সফর সূচিতে অন্যান্যদের মতামতও দেখা দরকার। আমাদের প্রাথমিক প্রস্তাবনা হচ্ছে, অল্প সময়ের মধ্যে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্ট পরিস্থিতিটা মূল্যায়ন করুক।’

এ দিকে, পরশু পিসিবি সভাপতি এহসান মানি বাংলাদেশকে এক প্রকার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, ‘পাকিস্তানের সব ম্যাচ পাকিস্তানেই হবে। আর টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে চাইলেও পাকিস্তানে টেস্ট সিরিজ খেলতে অনীহা প্রকাশ করায় পাকিস্তান কোচ মিসবাহ উল হকক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন।’

উল্লেখ্য, আসছে জানুয়ারিতে পাকিস্তান সফরে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ রয়েছে বাংলাদেশের। সূচি অনুযায়ী ২৩, ২৫ ও ২৭ জানূযারি তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। ফেব্রুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে আবার পাকিস্তানের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ পিএসএল। তাই টেস্ট সিরিজ আয়োজনে লম্বা সময় নেই পিসিবির হাতে।

সম্প্রতি ১০ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর ও ডিসেম্বরে দুই ভাগে লঙ্কানরা পাকিস্তান সফরে সীমিত ফরম্যাট ও টেস্ট সিরিজ খেলেছে। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে দেশটির প্রথম সারির অনেক ক্রিকেটারই সফর করেনি। তবে দুই সিরিজেই কোনো অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটেনি। এর আগে ২০০৯ সালে এই শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের টিম বাসেই সন্ত্রাসী হামলা হয়। পরবর্তীতে ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনে এক প্রকার নির্বাসিতই ছিল পাকিস্তান।

 



 

Show all comments
  • আবেদ খান ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৪০ এএম says : 0
    পূর্ণ সিরিজ খেলা উচিত
    Total Reply(0) Reply
  • পাবেল ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৪২ এএম says : 0
    আমার মনে হচ্ছে এখন পাকিস্তানে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই
    Total Reply(0) Reply
  • রিফাত ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৪৩ এএম says : 0
    আশা করি সঠিক সিদ্ধান্তই গ্রহণ করবে বিসিবি
    Total Reply(0) Reply
  • নাঈম ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৪৪ এএম says : 0
    শুভ কামনা রইলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য
    Total Reply(0) Reply
  • বিদ্যুৎ মিয়া ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:৪২ এএম says : 0
    পূর্ণ সিরিজ খেলা হলে পাকিস্তানের জন্য ভালো হবে
    Total Reply(0) Reply
  • নাজমুল ইসলাম ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:৫৮ এএম says : 0
    আপনার দেশে যখন কোন দেশ আসতে চাচ্ছেনা তখন কিন্তু পাকিস্তান আপনার দেশে এসেছিল। আর এখন পাকিস্তানের পরিবেশ টা আগের মত নেই ভয় পাওয়ার কিছু নেই।আপনি অন্য দেশের সাথে খেলতে চান আপনার সাথে খেলতে চায় না আপনার সাথে খেলতে চাই আপনাদের সাথে খেলতে চান এটাই সাইন্স।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিসিবি

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৩০ জানুয়ারি, ২০২০
২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন