Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৮ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

বাবুলকে ‘জিজ্ঞাসাবাদ’ ইউটিউবে প্রকাশ করুন : জাফরুল্লাহ

প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : স্ত্রী খুনের ঘটনায় এসপি বাবুল আক্তারকে পুলিশের ১৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের তথ্য ইউটিউবের মাধ্যমে জাতির কাছে প্রকাশ করার আহ্বান জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।
জাতীয় প্রেসক্লাবে স্বাস্থ্য আন্দোলন ও উবিনীগ আয়োজিত রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনা : উপেক্ষিত স্বাস্থ্য বাজেট’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
প্রসঙ্গত: শুক্রবার মধ্যরাতে বাবুল আক্তারকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ। এরপর ১৫ ঘণ্টা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও গুজব ছড়ায়। এ নিয়ে দিনভর নাটকীয়তা চলে। পরে অবশ্য তিনি ‘ছাড়া’ পান।
এ প্রসঙ্গে জাফল্লল্লাহ চৌধুরী বলেন, এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যার পর আপনারা বললেন, তাকে জঙ্গিরা হত্য করেছে। আবার বললেন জামায়াত-শিবির হত্যা করেছে। আসলে এসপি বাবুল আক্তারের সাথে পুলিশ হেফাজতে ১৫ ঘণ্টা আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর কি কথা হয়েছে তা ইউটিউবে প্রকাশ করুন। ভালো মন্দ দেশের জনগণ বিচার করবে। সরষের মধ্যে ভূত আছে কিনা তা বের হয়ে আসবে।
সম্প্রতি ১ লাখ আলেমের জঙ্গিবাদবিরোধী ফতোয়া নিয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আপনারা গণস্বাক্ষর নিয়েছেন সেটাকে সাধুবাদ জানাই। কিন্তু একটি সংরক্ষিত জায়গা কুমিল্লা সেনানিবাসে সোহাগী জাহান তনুকে হত্যার পর তো আপনারা কোনো আওয়াজ দিলেন না। কেন? আপনারা কি মানুষকে ভয় পান না কি আল্লাহকে?
প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, তার সময়ে আমাদের দেশে সুষ্ঠু ভোট হয়নি। যা হয় তা সবই ধাপ্পাবাজি। আর এই কাজী রকীব উদ্দিনের কাজই হলো ধাপ্পাবাজি করা।
অর্থমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা এত জনকে ফাঁসি দিতে পারেন আর ব্যাংক লুটসহ একটি লুটপাটেরও বিচার করতে পারলেন না- এটা কেমন কথা?
মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোজাহেরুল হক , স্বাস্থ্য আন্দোলনের সদস্য পলাশ বরাল, উবিনীগের পরিচালক সীমা দাশ প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ