Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

স্বামীর সহযোগিতায় গণধর্ষণের শিকার স্ত্রী

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:১৯ এএম

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে এক গৃহবধূকে স্বামীর সহযোগিতায় গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত শনিবার রাতে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার জাটিয়া ইউনিয়নের চরপাড়া এলাকায় ওই গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার হন।
এ ঘটনায় গত রোববার রাতে থানায় ঐ গৃহবধূ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় স্বামীসহ দুই অভিযুক্তকে আটকের পর সোমবার দুপুরে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।
জানা যায়, গত শনিবার বিকেলে স্বামী রতন মিয়ার সঙ্গে ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসের পেছনে বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজ খুঁজতে যান ওই গৃহবধু। কোনো বাসায় কাজ না পেয়ে স্বামীর সঙ্গে ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে জাটিয়া ইউনিয়নের শিমুলতলী গিয়ে বাড়ি না ফিরে শিবপুর গ্রামের দরগায় গৃহবধুকে নিয়ে গান শুনতে যায় স্বামী রতন। গান শুনে রাত ১১টার দিকে হেঁটে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার জন্য তারা রওনা হয়। দ্রত বাড়িতে যাওয়া যাবে এ কথা বলে রাস্তা দিয়ে না গিয়ে ক্ষেতের মাঝখান দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এর পর জাটিয়া ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামের বাবু মিয়ার একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে স্ত্রীকে নিয়ে যায় রতন। সেখানে গিয়ে স্ত্রীকে মারধর করে অপেক্ষমাণ লম্পটদের হাতে তুলে দেয় তাকে। সেখানে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষিত হয় ওই গৃহবধূ। রোববার ভোরে সেখান থেকে পালিয়ে এসে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ থানায় গিয়ে হাজির হন। পরে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান শুরু করে। আটক করা হয় প্রধান অভিযুক্ত স্বামী রতনসহ সরিষা ইউনিয়নের লংগাইল গ্রামের আবদুস সোবহানের ছেলে নজরুল ইসলামকেও।
ঈশ্বরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জয়নাল আবেদীন বলেন, স্ত্রীকে ধর্ষকদের হাতে তুলে দেয় স্বামী। গণধর্ষণের ঘটনার এমন খবর পেয়ে তার স্বামীসহ দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে।

 

 



 

Show all comments
  • Khan Ifteakhar ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    একেই না বলে স্বামীর সহযোগিতা
    Total Reply(0) Reply
  • Jahid Habib ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 0
    এই কি শুরু হলো আমাদের দেশে জাহেলিয়াত চলে আসলো
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Anwar Hossin ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 0
    ছি ছি,, আল্লাহ তাদের বিচার কর
    Total Reply(0) Reply
  • Imtiaz Ahammad Bulbul ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 0
    দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠত হচ্ছে,,দিক্কার,,, চি চি,,,
    Total Reply(0) Reply
  • কাজী হাফিজ ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:০৮ এএম says : 0
    These persons must face hanging. Penal Code must have to be changed top include hanging for Gang Rape and Cild rape. There is no ifs and buts.
    Total Reply(0) Reply
  • ahammad ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২:২৮ এএম says : 0
    আরে ভাই বুঝেন না কেন সব কিছুই ডিজিটালতো তাইই !!!!!!!!!
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গণধর্ষণ

২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ