Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সিএএ-র বিরোধিতায় এক মঞ্চে বিরোধীরা

১৩ জানুয়ারি হতে পারে বৈঠক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় জাতীয় স্তরে এবার এক মঞ্চে আসছে বিরোধী দলগুলি। সব ঠিকঠাক চললে আগামী ১৩ জানুয়ারি দিল্লিতে বিরোধী নেতৃবৃন্দ এই নিয়ে বৈঠক করবেন। ওই দিন বেলা দুটোয় সংসদের অ্যানেক্সি ভবনে ওই বৈঠকে উপস্থি’ত থাকার কথা কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গাঁধী, তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পওয়ার, ডিএমকে প্রধান এম কে স্ট্যালিন প্রমুখের। আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে বাম দলগুলিকেও। নাগরিকত্ব আইনের প্রশ্নে বিরোধীদের একত্র করার কাজটা শুরু করেছিলেন মমতাই। ওই আইন পাশ হওয়ার পর থেকেই কেন্দ্রীয় ওই নীতির বিরোধিতা জানিয়ে পথে নেমেছেন মমতা। গোটা দেশের মধ্যেই মমতাই প্রথম মুখ্যমন্ত্রী যিনি কার্যত কেন্দ্রকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলেছিলেন, পশ্চিমবঙ্গে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) ও নয়া নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) কোনওটাই প্রয়োগ হতে দেবেন না। তার পরে একে একে সুর চড়ায় কেরল, মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ ও কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলি। ইতিমধ্যে মমতাই বিরোধী দলগুলিকে চিঠি লিখে একত্র হওয়ার আহ্বান জানান। তাতে ঐকমত্য জানান সনিয়া। গত মাসের ২৯ তারিখ ঝাড়খ-ে হেমন্ত সোরেনের শপথ অনুষ্ঠানে একমঞ্চে দাঁড়ান রাহুল গাঁধী-মমতা-স্ট্যালিন-কানিমোঝি-তেজস্বী যাদব-ডি রাজা-সীতারাম ইয়েচুরিরা। সম্প্রতি কেরল সরকার রাজ্য বিধানসভায় সিএএ-র বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ করেছেন। তার পরে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও অ-বিজেপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের চিঠি দিয়ে একযোগে চলার ডাক দিয়েছেন। রাজনৈতিক শিবির মনে করছে, মমতা যে প্রক্রিয়াটি শুরু করেছিলেন, ১৩ তারিখ সেটাই একটা রূপ পেতে চলেছে। শাসক শিবিরকে প্রতিরোধের বার্তা দিতে খোদ দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদীর খাসতালুকে বিরোধীদের সার্বিক ঐক্যের ছবিটি তুলে ধরতে চাইছেন মমতা। রাজ্যওয়াড়ি সিএএ বিরোধী আন্দোলনকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য উদ্যোগী তিনি। তৃণমূল নেত্রী বুঝতে পারছেন, যেহেতু সিএএ একটি কেন্দ্রীয় আইন, সে কারণে সব ক’টি বিজেপি-বিরোধী রাজ্যকে এক যোগে এগিয়ে আসতে হবে। তবেই ওই আইনের বিরুদ্ধে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছোড়া সম্ভব হবে মোদী-শাহকে। এবিপি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এনআরসি

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
১৪ জানুয়ারি, ২০২০
২৮ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ