Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

‘ফাঁদে পা দেবো না’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

ইরাকে দুটি মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি সাংবাদিকদের কাছে নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।
তিনি বলেছেন, এ মুহূর্তে নতুন করে কোনো যুদ্ধের ভার বহন করার মত ক্ষমতা যুক্তরাষ্ট্র এবং বিশ্বের নেই। ন্যান্সি পেলোসি ইরানকেও সংঘাত বন্ধ করার দাবি জানিয়েছেন।

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার বলেন, ইরাকে আমাদের সেনা মোতায়েন রয়েছে। আমরা অবশ্যই তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করব এবং অপ্রয়োজনীয় উস্কানির ফাঁদে পা দেব না। সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস।



 

Show all comments
  • Cold N Stone ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১:১৫ এএম says : 0
    এভাবে ইটের জবাব যদি পাটকেল দিয়ে দেয়া যায় তাহলে কেউ মুসলমামদের দিকে চোখ তুলে তাকানোর সাহস পাবে না।
    Total Reply(0) Reply
  • habib ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৪৯ এএম says : 0
    I cannot understand why muslim world are continuing made mistake. America and Israeli intention to destroy muslim power at any cost to given green signal Israel to occupied more and more arab land without any resistance from muslim country. muslim leader should know and realize why Saddam Hussain Iraq Muhammar Qaddafi Libya and Qasem Sulaimany Iran was killed by America and they're alley. America and western country seek for oil stealing from the region and disestablishing country.
    Total Reply(0) Reply
  • Jahidul Islam Sohan ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১:১৭ এএম says : 0
    ইরানের কাছে একটা অনুরোধ করছি– দিল্লিতে মোদির মাথার উপর যেন একটা ড্রোন নিক্ষেপ করায় হয় যাতে ধুতি বাহিনী ধুতি খুলে দৌড় শুরু করে, ধুতি পরার সময়ও যেন না পায়!!!
    Total Reply(0) Reply
  • Zillur Rahaman ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১:১৭ এএম says : 0
    ইরান খুব শীগ্রই পারমাণবিক বোমার অধিকারী হবে, ট্রাম্প কিছুই করতে পারবে না, শুধু হা করে তাকিয়ে দেখবে। তখন বলবে, কি দিয়ে যে কি হলো, বুঝলাম না। তখন আমেরিকার দাম্ভিকতা ও অহংকার ধুলোয় মিশে যাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Anamul Haque ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১:১৮ এএম says : 0
    এই হামলায় যে আমেরিকার অহংকার ধংস হলো এটায় ইরানের বড় পাওয়া আর আমেরিকার মিসাইল প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থাড কে নিয়ে আমেরিকার যতো গর্ব সেটাও নিচে নামলো এখন এই প্রতিরক্ষা ব্যাবস্থা থাড কেউ লিচু গাছের বাদুর তারানোর জন্যও কিনবে না।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Didar ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১:১৮ এএম says : 0
    যেটাই বলেন আমেরিকা হচ্ছে একটা সুবিধাবাদী দেশ যে যুদ্ধ লাগবে তাদের অস্ত্র বিক্রি শুরু হয়ে যাবে এইতো আমেরিকার বড় সফলতা এখানে আর আমরা আছি এমেরিকা ভয় পাইসে এসব নিয়ে আর তাড়াতাড়ি চাইছে যেভাবে হোক যুদ্ধটা লাগুক তাহলে তাদের রাজত্ব ও ঠিক থাকবে আর তাদের অস্ত্র বিক্রি ও ঠিক ভাবে চলবে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মার্কিন


আরও
আরও পড়ুন