Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ০২ রজব ১৪৪১ হিজরী

আপাতত শুধু টেস্টের জন্যই বাংলাদেশকে চায় পাকিস্তান

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

প্রতি দিন নয়, প্রতি ঘন্টায় ঘন্টায় নতুন নতুন ঘোষনা নিয়ে হাজির হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর। বিপিএলের মাঝে তাই ম্যাচের চাইতে এদিকেই নজর বেশি রাখতে হচ্ছিল সাংবাদিকদের। তারই শেষ কিস্তি পাওয়া গেছে গতকাল রাতেই। প‚র্ণ সিরিজের জন্য নয়, সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য পাকিস্তান সফরে যেতে পারে, বাংলাদেশের এই ভাবনা জেনে আপাতত শুধু টেস্ট সিরিজ খেলতে যাওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তবে পাকিস্তানের এই প্রস্তাব একেবারে উড়িয়ে না দিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাতে আজকের দিনটি চেয়ে নিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন।

গতকাল বিপিএলের খেলা চলার সময় মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আসেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। পাকিস্তান সফরের ব্যাপারে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম, গেম ডেভোলাপমেন্টের চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদকে নিয়ে জরুরী সভা করেন তিনি। সভায় পাকিস্তানের দেওয়া নতুন প্রস্তাব নিয়ে সবার মতামত জানতে চাওয়া হয়। পরে সংবাদ মাধ্যমকে নাজমুল জানান টি-টোয়েন্টির বদলে এখন কেবল টেস্ট খেলতে চেয়েছে পাকিস্তান, ‘ওদের আপডেটগুলো দিচ্ছিলাম। আমাদের এখন পর্যন্ত ফুল সিরিজটা ছিল। তাদের জানিয়েছিলাম টি-টোয়েন্টি খেলে চলে আসতে চাই। পরে কোন এক সময় টেস্ট খেলার কথা বলেছিলাম। কিন্তু তাদের (পাকিস্তানের) টেস্টের দিকেই আগ্রহ বেশি। যেহেতু টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ চলছে, তারা বলছে টেস্টটা গুরুত্বপ‚র্ণ, টি-টোয়েন্টি আমরা পরে খেললেও অসুবিধা নেই। ওরা যেটা গুরুত্ব দিচ্ছে টি-টোয়োন্টি তো দ্বিপাক্ষিক। বরং ওরা (পাকিস্তান) বলেছে টেস্টটা আগে খেল। এটা তো টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে একসময় খেলব। এটা আজকে তাদের প্রস্তাব।’

টি-টোয়েন্টি বাদ দিয়ে পাকিস্তানে বাংলাদেশের কেবল এক টেস্ট খেলার সম্ভাবনার কথাও জানান বিসিবি প্রধান। ম‚ল কথা পাকিস্তানে তারা খেলতে রাজী, সেটা টেস্ট হোক বা টি-টোয়োন্টি, তবে সেক্ষেত্রে সিরিজ হওয়া চাই সংক্ষিপ্ত, ‘হতে পারে (এক টেস্ট)। একটা টেস্ট খেললে তো টি-টোয়েন্টি থেকে কম সময় লাগবে। একদিন আগে গেলাম, খেলে চলে এলাম। সপ্তাহ খানেকের ব্যাপার। খেলব না বলছি না, খেলতে আমাদের আপত্তি নেই। আমাদের লম্বা সময় সেখানে থাকতে অস্বস্তি বোধ আছে।’

সিদ্ধান্ত যেমনই হোক আজই তা নিয়ে নেওয়া হবে। যাওয়ার ব্যাপারটা একপাশে রেখে বাংলাদেশ এখন দেখছে না গেলে কী সমস্যা হতে পারে, ‘আমরা এজেন্সি থেকে যা যা রিপোর্ট পাওয়ার কথা ছিল ওটা পেয়েছি। তারপরও আরও আলাপের বাকি আছে। আমরা যদি এখন বলি যে টি-টোয়েন্টি খেলব, টেস্ট পরে। সেক্ষেত্রে তারা কি রেসপন্স করবে সেটা আমরা জানি না। সেজন্য এখন পর্যন্ত ফাইনাল কিছু হয়নি। কালকের মধ্যে একটা সিদ্ধান্ত ওদের আমরা জানিয়ে দেব। পিসিবিকেও বলা হয়েছে। আমার মনে হয় যা করতে হবে কালকের (আজ) মধ্যেই করতে হবে। আমাদের দেখতে হবে গেলে কী হবে না গেলে কী হবে। বরং না গেলে কী হবে সেটা নিয়েই আমাদের চিন্তা । সবার সঙ্গে আলাপ করেছি কি হতে পারে। টেস্ট (টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট) নিয়েই চিন্তা।’

দলের সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম জানিয়েছেন, পাকিস্তান সফরে যাবেন না তিনি। কোচিং স্টাফদের কয়েকজন না যাওয়ার কথা বলেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন বিসিবি প্রধান, ‘মুশফিক প্রথম থেকেই যাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহী না। আর অন্য যাদের সাথে কথা হয়েছে, তারা বলেছে সংক্ষিপ্ত হলেই ভালো হয়। এটা আমরা বলেছিলাম। ওরা তখন আমাদের পাল্টা বলেছে, আমাদের প্রায় সব খেলোয়াড় পিএসএলে বিভিন্ন জায়গায় থেকে ৩৫ দিনের জন্য খেলতে সম্মত হয়েছে। তাহলে কেন জাতীয় দলের জন্য পারবে না? কোচিং স্টাফরা অনেকেই যাবে না। আবার প্রধান কোচ বলেছে যাবে। তিনিও ম‚লত টি-টোয়েন্টির কথাই বলেছেন। খেলোয়াড় যত জনের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা বলেছে সংক্ষিপ্ত চায়। সবদিক বিবেচনা করেই ওদের আমরা বলেছিলাম, টি-টোয়েন্টি খেলে চলে আসব। পরে আমরা টেস্ট খেলব।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ