Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ৩০ জানুয়ারী ২০২০, ১৬ মাঘ ১৪২৬, ০৪ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

দুই বছরেই পারমাণবিক অস্ত্রধারী দেশ হবে ইরান -ফ্রান্স

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০২০, ৪:৫৭ পিএম

ইরান ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তির শর্ত থেকে নিজেদেরকে সরিয়ে নিলে আগামী এক থেকে দুই বছরের মধ্যে দেশটি পারমাণবিক অস্ত্রধারী দেশে পরিণত হতে পারে। শুক্রবার এই মন্তব্য করেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রী জঁ-যুভ লে দ্রিয়ান।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র-ইরানের মধ্যেকার উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। মূলত উভয় রাষ্ট্রের মধ্যে যুদ্ধ এড়ানোই বৈঠকের উদ্দেশ্যে ছিল। কারণ তারা আশক্সক্ষা করছেন যে, মধ্যপ্রাচ্যে বিষয়ে যেকোনো পক্ষের ভুল পদক্ষেপই ইউরোপের দেশগুলোকে মধ্যপ্রাচ্যের সংঘর্ষে জড়িয়ে ফেলতে পারে।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক বক্তৃতায় জানান, যতদিন তিনি প্রেসিডেন্টের পদে আসীন আছেন, ততদিন ইরান কোনোভাবেই পারমাণবিক অস্ত্রধারী দেশ হতে পারবে না।

তারই প্রেক্ষিতে আরটিএল নামক এক রেডিওকে ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যদি ইরান ভিয়েনায় হওয়া চুক্তির শর্ত ধারাবাহিকভাবে লংঘন করতে থাকে, তাহলে অবশ্যই, অতি অল্প সময়ের মধ্যে, হয়তো এক থেকে বছরের মধ্যেই তারা পারমাণবিক অস্ত্র অর্জন করতে পারে।

সম্প্রতি ইরানের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর ব্যক্তি কাসেম সোলেইমানিকে এক ড্রোন হামলায় হত্যা করে ইরান। এ ঘটনার প্রতিক্রিয়া চরম প্রতিশোধ গ্রহণের হুঁশিয়ারি দিয়েছিল ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনি। পরে ২০১৫ সালে পারমাণবিক দেশগুলোর সঙ্গে অনুষ্ঠিত চুক্তি থেকে নিজেদের সরিয়ে নেয় দেশটি। তারা জানায়, ভবিষ্যতে আর পারমাণবিক চুক্তির শর্ত মেনে চলবে না। ফলে নতুন উত্তেজনা তৈরি হয়। সূত্র: আরব নিউজ।



 

Show all comments
  • হাবিব ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ২:৪১ পিএম says : 0
    বানান অনেক ভুল
    Total Reply(0) Reply
  • হাবিব ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ২:৪৩ পিএম says : 0
    সম্প্রতি ইরানের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর ব্যক্তি কাসেম সোলেইমানিকে এক ড্রোন হামলায় হত্যা করে ইরান। কত বড় ভুল!
    Total Reply(0) Reply
  • Mr.siam ১৩ জানুয়ারি, ২০২০, ১১:৪৪ পিএম says : 0
    সম্প্রতি ইরানের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর ব্যক্তি কাসেম সোলেইমানিকে এক ড্রোন হামলায় হত্যা করে ইরান। ইরান নয়, হত্যা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এখানে ভুল বলা হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরান


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ