Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

মোদির কেন্দ্রে প্রিয়াঙ্কার প্রতিবাদ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

নরেন্দ্র মোদির বারাণসীতে গিয়ে সিএএ নিয়ে তাকে চ্যালেঞ্জ জানালেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। দেখা করলেন আহত প্রতিবাদীদের সঙ্গে। গেলেন বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়েও। মায়াবতী চুপচাপ। অখিলেশ যাদব বিবৃতি দেয়ার বাইরে বেশি কিছু করছেন না। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে যে রাজনৈতিক নেত্রীকে বিক্ষোভ, প্রতিবাদ করতে দেখা যাচ্ছে, তিনি হলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তাকে দেখা যাচ্ছে অত্যাচারিত দলিতদের পাশে দাঁড়াতে বা সিএএ নিয়ে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে থাকতে। প্রিয়াঙ্কা শুক্রবার বেছে নিয়েছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনকেন্দ্র বারাণসী। ৪ ঘন্টা ধরে সেখানে ঘুরলেন। প্রথমে গেলেন গুরু রবিদাস মন্দিরে। দলিতদের আরাধ্য দেবস্থানে পুজো দিলেন। তারপর নৌকো করে পঞ্চগঙ্গা ঘাটে। সেখানে সিএএ নিয়ে প্রতিবাদ করতে গিয়ে আহতদের সঙ্গে দেখা করলেন। মৃতের পরিবারের লোকেদের সঙ্গে কথা বললেন। সেখান থেকে গেলেন বেনারস হিন্দু বিশ্বিবদ্যালয়ে আন্দোলনরত ছাত্রদের সঙ্গে কথা বলতে। একসময় উত্তর প্রদেশ রাজনৈতিক বিক্ষোভ, আন্দোলনের জন্য বিখ্যাত ছিল। কিন্তু স¤প্রতি সেই প্রবণতায় বদল দেখা যাচ্ছে। ক্রমশ জমি হারাতে থাকা মায়াবতী আন্দোলনের মধ্যে খুব একটা যাচ্ছেন না। মুলায়মের বয়স হয়েছে। তরুণ অখিলেশও বিক্ষোভ-প্রতিবাদে বিশেষ নেই। তারা ক্রমশ বিবৃতিসর্বস্ব রাজনীতির ভিতর ঢুকে যাচ্ছেন। জাতিগত রাজনীতিতে অভ্যস্ত এই দুই দল বদলে যাওয়া পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেদের মানাতে হিমশিম খাচ্ছেন। কংগ্রেস নেতা শুভঙ্কর সরকার ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ‘ভয় দেখিয়ে মায়াবতী, অখিলেশকে চুপ করানো যেতে পারে। কিন্তু প্রিয়াঙ্কাকে যায়নি। সে কারণেই উত্তর প্রদেশে শুধু তাকেই আন্দোলন করতে দেখা যাচ্ছে। তার আন্দোলনের ক্ষেত্রে এখন সব থেকে বড় কথা হল, ভয় না পেয়ে প্রতিবাদ করা। পরে কংগ্রেস অবশ্যই এর সুফল পাবে।’
রাজনীতিতে জায়গা কখনওই খালি থাকে না। মায়াবতী-অখিলেশ জায়গা ছেড়ে দিলে অন্য কেউ তাতে আসতে বাধ্য। সাংবাদিক ও উত্তর প্রদেশ বিশেষজ্ঞ শরদ গুপ্ত ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন, ‘যোগীর বিরোধিতায় প্রিয়ঙ্কাকেই কিছুটা সক্রিয় দেখা যাচ্ছে। যে রকম অবস্থা চলছে, তাতে পরবর্তীকালে হয় কোনও নতুন দল বিরোধীদের জায়গা দখল করতে পারে বা প্রিয়াঙ্কার নেতৃত্বে কংগ্রেস জমি দখল করতে পারে। সিংহের এলাকায় ঢুকে প্রিয়াঙ্কার প্রতিবাদও তাই গুরুত্বপূর্ণ।’সূত্র : ডয়েচে ভেলে।

 

 



 

Show all comments
  • কাওসার আহমেদ ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:২৮ এএম says : 0
    প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর নেতৃত্বে বিজেপির বিরুদ্ধে সবার ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত
    Total Reply(0) Reply
  • তুষার আহমেদ ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৩০ এএম says : 0
    দমন পীড়ন করে জনগণকে দমাতে পারবে না
    Total Reply(0) Reply
  • মনিরুজ্জামান ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:১৪ এএম says : 0
    বর্তমান মোদি সরকার ভারতের জন্য হুমকি
    Total Reply(0) Reply
  • জাবেদ ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৩২ এএম says : 0
    সিএএ নিয়ে সকল বিবেক সম্পন্ন মানুষের প্রতিবাদ করা উচিত
    Total Reply(0) Reply
  • আবেদ খান ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৩২ এএম says : 0
    প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে ধন্যবাদ
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রিয়াঙ্কা

২২ জানুয়ারি, ২০২১
২৭ জানুয়ারি, ২০২০
১৮ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ