Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

লালমনিরহাটের বুড়িমারী সীমান্তে বাংলাদেশিকে পিটিয়ে হত্যা

লালমনিরহাট জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ২:৪৫ পিএম

লালমনিরহাটের বুড়িমারী সীমান্তে আবু সাঈদ (২৫) নামে এক বাংলাদেশিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) বিরুদ্ধে।

আজ শনিবার সকালে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী বামনদল সীমান্তের ৮৩৬ ও ৮৩৭ নম্বর মেইন পিলার এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করে নিয়ে গেছে ভারতীয় মেখলিগঞ্জ থানা পুলিশ।

আবু সাঈদ পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের বামনদল এলাকার বেনজির রহমানের ছেলে।

সীমান্তবাসী, বিজিবি ও নিহতের পরিবার জানায়, ওই সীমান্তের ভারতের অভ্যন্তরে তামাক ক্ষেতে কাজ করছিলেন আবু সাঈদ। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় চোরাকারবারী সন্দেহে বিএসএফ তাকে মারধর করে বিদ্যুতের পিলারের কাছে ফেলে রেখে চলে যায়। এতে তার মৃত্যু হলে আজ শনিবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে ভারতীয় মেখলিগঞ্জ থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

নিহত আবু সাঈদের বাবা বেনজির রহমান অভিযোগ করে বলেন, সীমান্তের তামাক ক্ষেত থেকে তাকে ধরে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে লাশ আবার তামাক ক্ষেতে ফেলে রেখে যায়। আমার ছেলে আবু সাঈদের লাশ ফেরত আনার জন্য বিজিবির কাছে সহযোগিতা চেয়েছি।
বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবু সাইদ নেওয়াজ নিশাত বলেন, বিএসএফের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তারা হত্যার বিষয়টি অস্বীকার করেছে। পতাকা বৈঠক করে নিহত আবু সাঈদের লাশ ফেরত আনা হবে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) রংপুর ৬১ ব্যাটালিয়নের বুড়িমারী কোম্পানি কমান্ডার আবুল হোসেন বলেন, নিহতের লাশ এলে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় পতাকা বৈঠকের জন্য বিএসএফকে চিঠি পাঠানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ