Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার , ২৯ জানুয়ারী ২০২০, ১৫ মাঘ ১৪২৬, ০৩ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

প্রশ্ন : প্রতিষ্ঠিত কোনো সুদখোর বা ঘুষখোর যদি নামাজের ইমামতি করে, তার পেছনে নামাজ পড়া যাবে কি? এক্ষেত্রে কি করণীয়?

সুজন আলী
ই-মেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০২০, ৮:২৫ পিএম

উত্তর : শরীয়তে ওয়াজিব হুকুম তরককারী কিংবা কোনো হারাম কাজ সম্পাদনকারী, বিশেষভাবে যদি মুসল্লীদের মধ্যে তার এ প্রবণতা প্রসিদ্ধ হয়ে থাকে, তবে তাকে ইমামতিতে না দেওয়াই উত্তম। জেনে শুনে এমন ব্যক্তির ইমামতিতে নামাজ পড়া মাকরুহ। যদি অধিকাংশ মুসল্লী এ ব্যক্তির দোষত্রুটি না জানে তাহলে তাদের নামাজ পড়তে কোনা অসুবিধা নেই। যারা জানেন, আর কোনোরূপ ফেতনা ছাড়া তাকে নামাজ পড়ানো থেকে বিরত রাখতে পারেন। তারা এর পেছনে নামাজ পড়বেন না। যদি এমন ব্যক্তি ইমাম হয়েই যান, তাহলে একান্ত ইচ্ছা করলে কেউ তার পেছনে নামাজ নাও পড়তে পারেন। না জানা অবস্থায় কিংবা শৃংখলার খাতিরে, অপরাগ অবস্থায় যে কেউ তার পেছনে নামাজ পড়লে নামাজ হয়ে যাবে।

উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন

ছেলে, মেয়ে ও তাদের উভয় ফ্যামিলির মতে এবং উভয় ফ্যামিলির উপস্থিতিতে কাজীর মাধ্যমে তালাক দেয়। ছেলে মেয়ে উভয়ে তালাক নামায় স্বাক্ষর করে এবং কাজী ছেলেকে দিয়ে তালাক বলায় এই ভাবে, আবুলের মেয়ে রহিমাকে (ছদ্ম নাম) মহারানার ৫০,০০০.০০ টাকা দিয়ে তালাক দিতে রাজি কিনা? থাকলে কবুল বলো, ছেলে কবুল বলে স্বাক্ষর করেন । মেয়েকে স্বাক্ষর করানোর সময় বলা হয় এই ছেলের সাথে যাবে কিনা? মেয়ে যাব না বলে স্বাক্ষর করেন। তালাক দেওয়ার এক সপÍাহের মধ্যে ছেলে মেয়ে উভয় আবার সংসার করতে চায়। প্রশ্ন হলো এখন তারা কি আবার সংসার করতে পারবে? পারলে কিভাবে?

উত্তর : শরীয়তের নিয়ম মানলে এ প্রক্রিয়ায় তালাক হয়ে গেছে। যদি স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনার মতো একটি তালাক দিত, তাহলে নির্দিষ্ট সময় (কমবেশি তিন মাস) এর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ