Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ঈদের ছুটির ৯ দিনে চিকিৎসাব্যবস্থা স্বাভাবিক থাকবে খোলা হবে কন্ট্রোল রুম

প্রকাশের সময় : ২৯ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : পবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটিকালীন সময়ে সরকারি হাসপাতালসহ সব চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসাব্যবস্থা স্বাভাবিক থাকবে। এ সময় প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টা জরুরি বিভাগ খোলা থাকবে। এছাড়া ঈদের দিন, পবিত্র শবে কদরের পরদিন এবং দুই শুক্রবার ব্যতীত প্রতিদিন সীমিত পরিসরে বহির্বিভাগের চিকিৎসাসেবা চালু থাকবে। রোগীদের সুবিধার্থে খোলা হবে কন্ট্রোল রুম।
গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে ঈদের ছুটির সময় দেশের সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসা কার্যক্রম চালু রাখার বিষয়ে এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এতে সভাপতিত্ব করেন। ঈদের ছুটির সময় সরকারি হাসপাতালে যথাযথ চিকিৎসা অব্যাহত আছে কি না তা তদারকি করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে দু’টি পৃথক কন্ট্রোল রুম খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবারের মধ্যে এই কন্ট্রোল রুমের সাথে যোগাযোগের ফোন নম্বর জানিয়ে দেয়া হবে।
সভায় দেশের সব সরকারি হাসপাতালে সরকারি ছুটির দিনে রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র, চিকিৎসক, নার্স এবং সুসজ্জিত অ্যাম্বুলেন্সসহ মেডিকেল চিকিৎসাসেবা প্রদানের সরঞ্জামাদি মজুদ রাখতে বলেন। পাশাপাশি মহাসড়ক, রেল ও নৌ-পথে আকস্মিক বড় দুর্ঘটনা মোকাবেলায় জরুরি চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করাসহ প্রয়োজনীয় সংখ্যক চিকিৎসক, ওষুধপত্র ও সরঞ্জামাদি প্রস্তুত রাখাতে মন্ত্রী সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। ঈদের ছুটিকালীন সময়ে চিকিৎসকগণকে রোস্টার ডিউটির মাধ্যমে দায়িত্ব পালন নিশ্চিত করতে সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
এদিকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটির মাঝেও রোগীদের সেবায় সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়। বন্ধের দিনগুলোতে রোগীদের সুবিধার্থে বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালের ইনডোর সেবাসমূহ ও বিভিন্ন জরুরি বিভাগসমূহ যথারীতি চালু থাকবে। বন্ধের দিনগুলোতে বিভিন্ন বিভাগের ওয়ার্ডসমূহে এবং কেবিনগুলোতে যাতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক চিকিৎসক ও নার্স চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত থাকেন সেজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ডা: কামরুল হাসান খান ইতোমধ্যে একাধিক সভা করে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন। এসব সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসিসহ ঊধ্বতর্ন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
ছুটি চলাকালীন সময়েও বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের বহির্বিভাগ রোগীদের সুবিধার্থে আগামী ৫ জুলাই মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে ওই দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্লাস, অফিস ও হাসপাতালের বৈকালিক স্পেশালাইজড কনসালটেশন সার্ভিস বন্ধ থাকবে।
এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা: এ বি এম আব্দুল হান্নান জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির নির্দেশে হাসপাতালের বহির্বিভাগ খোলা রাখার জন্য পরিচালক (হাসপাতাল) এবং বিভাগীয় চেয়ারম্যানদের ইতোমধ্যে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিনি জানান, পবিত্র শবে কদর উপলক্ষে আগামী ৩ জুলাই রোববার এবং পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আগামী ৪ থেকে ৭ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্লাস, অফিস এবং হাসপাতালের বহির্বিভাগ (৫ জুলাই, মঙ্গলবার ব্যতীত) ও বৈকালিক স্পেশালাইজড কনসালটেশন সার্ভিস বন্ধ থাকবে। তবে এ দিনগুলোতে বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালের ইনডোর সার্ভিস ও জরুরি বিভাগ যথারীতি চালু থাকবে।
এদিকে ঈদের ছুটিতে সরকারি হাসপাতালের পাশপাশি বেসরকারি হাসপাতালগুলো চিকিৎসাব্যবস্থা চালু রাখতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। ঈদের ছুটিতে ইউনাইটেড হসপিটালের সকল সেবা চালু থাকবে। এছাড়া রোগীর প্রয়োজনে কনসালটেশন, রক্ত পরীক্ষা, এক্স-রে, আল্ট্রাসনোগ্রাফি, সিটি স্ক্যান ও এমআরআইসহ অন্যান্য পরীক্ষা সুবিধা, এমনকি রক্ত প্রদান বা টিকা দান সুবিধাও ইমার্জেন্সি বিভাগের মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টা চালু থাকবে। এসময় স্পেশালিস্ট ডাক্তাররা সার্বক্ষণিকভাবে ভর্তি রোগীদের সেবায় যুক্ত থাকবেন বলে হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ঈদের ছুটিতে একইভাবে সেবা অব্যাহত রাখার বিষয়ে নিশ্চিত করেছে রাজধানীর ইনসাফ বারাকা কিডনি হাসপাতাল।
সামগ্রিক বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিকসমূহ) প্রফেসর ডা: সামিউল ইসলাম বলেন, ঈদের ছুটিতে চিকিৎসাব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এমনকি রোগীদের সুবিধার্থে খোলা হচ্ছে হচ্ছে কন্ট্রোল রুম। ঈদে প্রতি বছরই সড়ক দুর্ঘটনা লক্ষ্য করা যায়। তাই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের জন্য বরাবরের মতো ঈদুল ফিতরের দিনে উন্নত খাবার পরিবেশনের ব্যবস্থা থাকছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন