Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬, ০৮ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

১/১১’র বেনিফিসিয়ারি আওয়ামী লীগ

প্রেসক্লাবে আমীর খসরু

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

১/১১’র ফলে আওয়ামী লীগ লাভবান হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, আমার কাছে আবার এই বিষয়টি ভালো লাগে তারা স্বীকার করে এটি, যে ওয়ান ইলেভেনের সরকার তাদের আন্দোলনের ফসল। সুতরাং তাদের মধ্যে ১/১১’র যে ভূত চেপেছে সেটি থেকে দেশকে রক্ষা করতে হলে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন সংগ্রাম করতে হবে। আজকে যারা ক্ষমতায় আছে তারা যে ওয়ান ইলেভেনের সরকারের সাথে হাত মিলিয়ে ক্ষমতা দখল করে আছে যার ফলে ২০১৪ সালে ভোটারবিহীন নির্বাচন ২০১৮ সালে মধ্যরাতের নির্বাচন হয়েছে।

গতকাল শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী কর্মজীবী দলের উদ্যোগে ‘এক-এগারোর প্রেক্ষাপট আজকের বাংলাদেশ রচনা’ শীর্ষক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশের মানুষের ভোটাধিকার চিরতরে কেড়ে নেওয়ার যন্ত্র ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) মন্তব্য করে আমীর খসরু বলেন, আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচন নাকি হবে ইভিএমের মাধ্যমে। মধ্যরাতের নির্বাচনে ব্যালট চুরির মাধ্যমে যে নির্বাচন হয়েছে সেটি কিন্তু বিশ্ববাসীর কাছে দিনে-দুপুরে ভোট ডাকাতির নির্বাচন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে রয়েছে। সুতরাং এখন আর ব্যালট বাক্স ভর্তি করে কারচুপি করে নির্বাচন করার সুযোগ নাই। কারণ সেটি এখন তাদের কাছে অত্যন্ত কঠিন হয়ে গেছে। সে কারণে এটা এখন তাদের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি বলেন, আগে আলোচনা হতো নির্বাচনে কে জিতবে? এখন আর সেটি আলোচনা হয় না। আলোচনা হয়, এই সিটটি ওরা (আওয়ামী লীগ) দেবে, না ওরা নিয়ে নিবে? ঢাকা দুই সিটির নির্বাচনে ওরা কি দুটোই নিয়ে নেবে? নাকি একটি দিবে এইগুলো এখন জনগণ আলোচনা করে। আর এটার জন্য ইভিএম হচ্ছে তাদের মোক্ষম একটি অস্ত্র।

আয়োজক সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সালাউদ্দিন খানের সভাপতিত্বে এবং আলতাফ হোসেন সরদারের সঞ্চালনায় সভায় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, সাবেক কমিশনার অধ্যাপক ফাতেমা সালাম, কৃষক দলের মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

নবীন দলের আলোচনা: এদিকে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এবার ভোট চুরি করলে এর জবাব শক্ত হাতে দেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদীন ফারুক। তিনি বলেন, সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসন রাতেই নিয়ে নিছেন। এবার ইশরাক ও তাবিথের ভোট চুরি করলে এর জবাব দেয়া হবে। চোরের বিচার করার জন্য আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি।

গতকাল শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম হলে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয়তাবাদী নবীন দলের উদ্যোগে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সংগঠনের সভাপতি হুমায়ুন আহমেদ তালুকদারের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় আরো বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরান সালেহ প্রিন্স, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সোহেল রানা প্রমুখ।

জয়নুল আবদীন ফারুক বলেন, এই সরকারের অধীনে নির্বাচিত ডাকসুর ভিপি (নুর) ছাত্রলীগের নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে যদি মিছিল করতে হয়, আবেদন করতে হয়। তাহলে সেই সরকারের কাছে মায়ের (খালেদা জিয়া) মুক্তি চাওয়া মানে আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, এটা একটি নিরর্থক। তার কাছে মুক্তি চেয়ে কোনো লাভ হবে না। তাকে মুক্ত করে আনতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আওয়ামী লীগ

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ