Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আজ মস্কোতে লিবিয়ার ২ পক্ষের যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে সম্মত হওয়ার সম্ভাবনা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২০, ২:৩০ পিএম

লিবিয়ায় যুদ্ধরত দুই পক্ষ আজ সোমবার রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে স্বাক্ষর করতে পারে। আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত গভর্নমেন্ট অব ন্যাশনাল অ্যাকর্ডের (জিএনএ) প্রধান ফায়েজ আল সেরাজ এবং তার প্রতিদ্বন্দ্বী দলত্যাগী কমান্ডার খলিফা হাফতার এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করার কথা রয়েছে। লিবিয়ার একজন সিনিয়র কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা। ২০১১ সালে ন্যাটো সমর্থিত অভিযানে দীর্ঘদিনের শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফিকে হত্যার পর উত্তর আফ্রিকার তেলসমৃদ্ধ দেশ লিবিয়া টালমাটাল অবস্থায়। সেখানে কেউ কারো কথা শুনছে না। যে যেভাবে পারে সে সেভাবে দেশ চালাচ্ছে। ফলে একই দেশের মধ্যে একাধিক সরকার বিদ্যামান। এর ফলে তারা একে অন্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত।
দেশটি পূর্ব ও পশ্চিম দুটি ভাগে ভাগ হয়ে গেছে। পূর্বাঞ্চল নিয়ন্ত্রণ করছে খলিফা হাফতারের অনুগতরা। আর পশ্চিমের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে জিএনএ’র ফায়েজ।
এই দু’পক্ষের মধ্যে তীব্র লড়াই হচ্ছে মাঝে মধ্যেই। এর সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে বিদেশী শক্তিগুলো। খলিফা হাফতারের অনুগতরা গত এপ্রিলে জিএনএ সরকারের ঘাঁটি রাজধানী ত্রিপোলি দখলে নেয়ার জন্য হামলা চালায়। তারা ৬ই জানুয়ারি দখল করে নেয় কৌশলগত উপকূলীয় শহর সিরতে।
লিবিয়ার আল আহরার টেলিভিশন চ্যানেলকে হাই কাউন্সিল অব স্টেটের প্রধান খালেদ আল মেছরি বলেছেন, মস্কোতে ওই দুই নেতার চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে রাজনৈতিক একটি সমাধানের পথ তৈরি হতে পারে। আরো জানিয়েছেন ফায়েজ আল সেরাজের সঙ্গে তিনি মস্কো যেতে পারেন। অন্যদিকে পূর্বাঞ্চলভিত্তিক পার্লামেন্টের স্পিকার আগুইলা সালাহ যেতে পারেন খলিফা হাফতারের সঙ্গে।
অন্যদিকে রাশিয়ার একজন কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স বলছে, ফায়েজ ও হাফতার আজ সোমবার মস্কো পৌঁছাবেন। এরপর তারা একটি চুক্তি স্বাক্ষরের সম্ভাব্যতা নিয়ে আলোচনা করবেন। তবে লিবিয়ায় রাশিয়ার কন্ট্রাক্ট গ্রুপের প্রধান লেভ দেঙ্গোভ বলেছেন, লিবিয়ার এই দুই নেতা মুখোমুখি সাক্ষাত করবেন কিনা তা স্পষ্ট নয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন