Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার , ২৭ জানুয়ারী ২০২০, ১৩ মাঘ ১৪২৬, ০১ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ইসি সচিব বলেছেন আইন না জানায় অনেকে আচরণবিধি লঙ্ঘন করছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০২০, ৯:০০ পিএম

‘নির্বাচন কমিশন কড়াকড়ি নির্দেশনা আগেই দিয়ে রেখেছে। কমিশনের নির্দেশে আমি নিজেও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে কথা বলেছি। বলা হয়েছে, সব প্রার্থী যাতে নির্বিঘ্নে প্রচার কাজ করতে পারে। কাজে যাতে বাধা না দেয়। এরপরও যদি আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ আসে, আইন অনুযায়ী যে ব্যবস্থা নেওয়ার, তা নেওয়া হবে।’- গত দুইদিন নির্বাচনী প্রচারে উত্তেজনা, হামলার ঘটনা প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর হোসেন এসব কথা বলেছেন।

আজ মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে নির্বাচন ভবনে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন ।

আসন্ন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচারণায় অনেকে আইন না জানায় আচরণবিধি লঙ্ঘন করছে বলে জানিয়েছেন ইসির এই সিনিয়র সচিব।

এ সময় লিখিত অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সেটা রিটার্নিং কর্মকর্তা তদন্ত করছে। তদন্তে যে রিপোর্ট আসবে, সে অনুযায়ী আমরা কাজ করব।

একজন নির্বাচন কমিশনার এমপিদের আচরণবিধি যথাযথ পালনে পরিপত্র জারির বিষয়ে ইউনোট দিয়েছে, এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমার কাছে এখনও এ চিঠি আসেনি। সব দলের সঙ্গে কমিশনের মিটিং হয়েছে। কমিশন স্পষ্ট বলে দিয়েছেন, কোনো মন্ত্রী- এমপি, মেয়র তারা নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে পারবেন না। তারপর তেমন কেউ আচরণবিধি লঙ্ঘন করেনি। তারপরেও কেউ না জেনে করে থাকলে আমরা ব্যবস্থা নেবো।

তিনি বলেন, প্রার্থীদের আমরা একটি আচরণ বিধি দিয়ে দেই, তবে অনেকে সেটা পড়েন না। সে কারণে সমস্যাটি হয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি মন্ত্রীদের প্রচারণায় অংশ না নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন, আশাকরি আগামীকাল থেকে এমন কোন বিষয় ঘটবে না। অনেকে না জেনে বিধি লঙ্ঘন করেন, আপনাদের মাধ্যমে তাদের জানিয়ে দিচ্ছি এটা করা যাবে না।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সিটি করপোরেশন নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ