Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

সিং নয় খান হলে...

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

জঙ্গিদের নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়ার সময় হাতেনাতে ধরা পড়েছে কাশ্মীর পুলিশের ডিএসপি দেবেন্দ্র সিং। তাকে জিজ্ঞাসাবদ করে জানা গেছে, এই কাজের জন্য ১২ লাখ টাকা নিয়েছিল সে।
তদন্তে আরও জানা যায়, ২০০১ সালে সংসদ হামলার মূলচক্র হিসেবে ফাঁসিতে ঝোলা আফজল গুরুকে দিল্লিতে এক জঙ্গিকে লুকিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছিল দেবেন্দ্র। সেই জঙ্গিই পরে সংসদে হামলা চালায়।
শুধু এই ঘটনাই নয়, ডিএসপি দেবেন্দ্র সিং দীর্ঘদিন ধরে এভাবেই জঙ্গিদের সাহায্য করেছে। এই বিষয়গুলো প্রকাশ্যে আসার পরই কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুরের কংগ্রেস সংসদ সদস্য অধীর চৌধুরী।

তিনি বিজেপিকে আক্রমন করে সরাসরি প্রশ্ন তুলেছেন, আটক দেবেন্দ্র সিং যদি শিখ না হয়ে মুসলিম হত তা হলে কী হত? এত বড় মাপের একজন পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার হওয়ার পরে পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার ঘটনার ফের তদন্ত করা উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
গত সোমবার এই বিষয়ে একাধিক টুইট করে কোনওভাবেই দেশের শত্রুদের যাতে ছাড়া না হয় তার পক্ষে জোরালো সওয়াল করেন লোকসভার বিরোধী দলনেতা। এক্ষেত্রে যেন তাদের ধর্ম ও সামাজিক পরিচয় কোনও প্রভাব ফেলতে না পারে সেকথাও উল্লেখ করেন।
তিনি বলেন, ‘দেবেন্দ্র সিংয়ের গ্রেফতারের পর একটি নতুন প্রশ্নের জন্ম হয়েছে। সেটি হচ্ছে পুলওয়ামাতে জঙ্গি হামলার সময় সিকিউরিটি ইনচার্জ কে ছিল? সংসদে হামলার সঙ্গেও কী যোগ ছিল দেবেন্দ্র সিংয়ের? এই বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কী ভাবছেন সেটাও আমরা জানতে চাই।’ সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীর


আরও
আরও পড়ুন