Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২ ফাল্গুন ১৪২৬, ৩০ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

হাত,পা ও তালুতে ঘাম ঝড়া প্রতিরোধ

ডাঃ এস এম বখতিয়ার কামাল | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

শরীরে এমন কিছু ত্বকজনিত সমস্যা বা রোগ রয়েছে যা ভুক্তভোগি রোগিরা গুরুত্ব দেন না। কিন্তু যাদের এই সমস্যাটি রয়েছে তাদের চিকিৎসা প্রয়োজন। চর্মজনিত এই সমস্যাটি হলো হাত, পা ও হাতের তালুতে অতিরিক্ত ঘাম ঝড়া । এর কিছু কারনও রয়েছে। যেমন -

১. অজ্ঞাত- বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই কোন কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না। ২. বংশগত ৩. রাগ, ভয়, দূশ্চিন্তা ৪. হাত ও পায়ে ব্যাকটেরিয়া বা ফাংগাল ইনফেকশন ৫. হরমোনের সমস্যা- ডায়াবেটিস বা থাইরয়েড হরমোনের সমস্যা, রজ:নিবৃত্তি ৬. বিপাক ক্রিয়ার সমস্যা ৭. ক্যানসার জনিত সমস্যা-লিম্ফোমা, ফিওক্রোমোসাইটোমা ৮. অটো ইমিউন- রিউমাটয়েড আর্থাইটিস, এসএলই ইত্যাদি। ৯.কিছু কিছু ঔষধ।
চিকিৎসা
১. কারণ খুজে পেলে তার চিকিৎসা করতে হবে। ২. ড্রাই কেয়ার নামে একটি লোশন ঔষধের দোকানে পাওয়া যায়, সেটি হাত ও পায়ের তালুতে সকালে ও রাতে লাগাতে হয়। ৩. খাবার ঔষধ- প্রোপানথালিন ব্রোমাইড। ৪. ঘাম নিরোধি ইনজেকসন ৫. আয়েনটোফরেসিস ৬. কখনও কখনও অপারেশন দরকার হয়।
উপরোক্ত চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক আয়োনটোফরেসিস চিকিৎসা পদ্ধতি। আয়োনটোফরেসিস হাত ও পা ঘামার সব চেয়ে কার্যকর চিকিৎসা পদ্ধতি। ১৭০০ সাল থেকে চিকিৎসা বিজ্ঞানে এই পদ্ধতি ব্যবহার হয়ে আসছে। যদিও ১৯৪০ সাল থেকে ব্যাপক ভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এখানে একটি মেসিন থাকে, যেটি দূর্বল বিদ্যুৎ তৈরী করে। এই বিদ্যুৎ তারের মাধ্যমে ৪ টি স্টেইনলেস স্টিলের প্লেটে প্রবাহিত হয়। প্লেটের উপর ভিজা টাওয়েল থাকে। রোগী ভিজা টাওয়েলের উপর হাত ও পা রাখে। একটি সেসনে সাধারণত ১৫ থেকে ৩০ মিনিট সময় লাগে। ভালো হওয়ার আগ পর্যন্ত; সপ্তাহে সাধারণত ৩ দিন এই চিকিৎসা নিতে হয়। একবার ভালো হলে সাধারণত অনেক দিন পর্যন্ত রোগীর হাত ও পা ঘামা বন্ধ থাকে।

সহকারী অধ্যাপক
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
(চর্ম যৌন অ্যালার্জি)
কামাল স্কীন সেন্টার,
ফার্মগেট, গ্রীণ রোড, ঢাকা।
সেল- ০১৭১১৪৪০৫৫৮।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হাত

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন