Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৫ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

জঙ্গি অর্থায়নের মামলা থেকে অব্যাহতি দুই আইনজীবীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

জঙ্গি অর্থায়নের পৃথক মামলায় দুই আইনজীবীকে অব্যাহতি দিয়েছেন হাইকোর্ট। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এবং বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের ডিভিশন বেঞ্চ এ আদেশ দেন। অব্যাহতি পাওয়া দুই আইনজীবী হলেন, হাসানুজ্জামান লিটন এবং অ্যাডভোকেট মাহফূজ চৌধুরী বাপন। তাদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার হাসান এমএস আজিম। সরকারপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন বাপ্পি।
আদেশের পর হাসান এমএস আজিম জানান,২০১৫ সালের ১৯ ফেব্রæয়ারি হাটহাজারির মাদরাসাতুল আবু বকর নামে একটি মাদরাসায় অভিযান চালিয়ে ১২ জনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৭। পরে ২১ ফেব্রæয়ারি বাঁশখালীর লটমণি পাহাড়ে র‌্যাবের অভিযানে অস্ত্রসহ আরও পাঁচজন  গ্রেফতার হয়। ওই বছরের ১৩ এপ্রিল সংবাদ সম্মেলন করে র‌্যাব জানায়, হাটহাজারী ও বাঁশখালী থেকে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিরা নতুন জঙ্গি সংগঠন ‘শহীদ হামজা ব্রিগেড’র সদস্য। শহীদ হামজা ব্রিগেডের গ্রীণ, বøু এবং হোয়াইট নামে তিনটি সামরিক উইং রয়েছে। প্রত্যেকে উইংয়ে ৭ জন করে সামরিক  প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সদস্য রয়েছে। ২০১৩ সালের নভেম্বরে চট্টগ্রাম নগরের ফয়’স  লেকে একটি  রেস্টুরেন্টে সভা করে এই জঙ্গি সংগঠনের আত্ম প্রকাশ ঘটে। পরে ১৮ আগস্ট হামজা ব্রিগেডকে অর্থায়নের অভিযোগে ঢাকা থেকে ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানা (৩৯), অ্যাডভোকেট হাসানুজ্জামান লিটন (৩০) ও অ্যাডভোকেট মাহফুজ চৌধুরী বাপনকে (২৫)  গ্রেফতার করা হয়। তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়। পরে তারা জামিনে মুক্তি পান। ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানা বিএনপি  নেতা ও সাবেক হুইপ সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের মেয়ে। গত বছরের ২০ আগস্ট হাটহাজারীর মামলায় ৩৩ জন আসামি ও বাঁশখালীর মামলায় ২৮ জন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। এদের মধ্যে লিটন ও মাফজু চৌধুরী বাপন অভিযোগ গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করেন। শুনানি শেষে রুল জারি হয়। রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে গতকাল উপরোক্ত আদেশ দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন