Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

ছুটির দিনে উপচে পড়া ভিড়

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

সাপ্তাহিক ছুটির দিন গতকাল শুক্রবার ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ছিল উপচেপড়া ভিড়। মেলার আশপাশের রাস্তাগুলো লোকে লোকারণ্য হয়ে যায়। সকালে মেলার গেট খোলার পর থেকেই এমন ভিড় শুরু হয়। বিকেল নাগাদ ক্রেতা-দর্শনার্থীর সংখ্যা কয়েক গুণ বেড়ে যায়। ২৫ তম ঢাকা বাণিজ্য মেলার ১৭তম দিনে মেলায় নারী, শিশু, তরুণ-তরুণীসহ ক্রেতা-দর্শনার্থী এবং সর্বস্তরের মানুষের উপস্থিতিতে কেনাকাটাও জমে উঠে। খুশি বিক্রেতারাও। এদিকে মূল প্রবেশদ্বার থেকে শুরু করে মেলা প্রাঙ্গণের আশপাশে কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলেছে আইনশৃংখলা বাহিনী। পুলিশসহ অন্যান্য আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা মেলা প্রাঙ্গণে মোতায়েন রয়েছেন।
সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল থেকেই ক্রেতা-দর্শনার্থীরা আসতে শুরু করে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মেলার গেটে প্রবেশের লাইনও লম্বা হতে থাকে। মানুষের ভিড়ে মেলা প্রবেশ দ্বারে পা ফেলার জায়গা ছিল না। মেলায় আগত দর্শনার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ছুটির দিন হওয়ায় দিনভর বাণিজ্য মেলায় ঘুরে বেড়াতে আগেভাগেই আসেন তারা। বিক্রয় কর্মীরা জানান, মেলা উপলক্ষে বিভিন্ন সামগ্রীতে রয়েছে বিশেষ ছাড়। স্টলগুলোতে গ্রাহকরা আসেন, পণ্য দেখছেন এবং অনেকেই তাদের পছন্দ মতো পণ্য কিনেন।

মিরপুর ১০ নম্বর থেকে সপরিবারে মেলায় আগত আবুল কালাম আজাদ বলেন, মেলায় পণ্যের দাম বেশি। বিক্রেতারা চমৎকার সাজসজ্জায় স্টল সাজিয়েছেন, আর সুযোগ বুঝে বেশি দাম হাঁকাচ্ছেন।
উল্লেখ্য, এ বছর মেলায় ভারত, পাকিস্তান, চীন, মালয়েশিয়া, ইরান, থাইল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্রসহ ২১টি দেশ অংশ নিচ্ছে। মেলায় রয়েছে সাধারণ, প্রিমিয়ার, সংরক্ষিত, বিদেশি, সাধারণ মিনি, সংরক্ষিত মিনি, প্রিমিয়ার মিনি, বিদেশি মিনি প্যাভেলিয়ন, সাধারণ ও প্রিমিয়ার স্টল, ফুড স্টল, রেস্তোরাঁসহ ১৩টি ক্যাটাগরিতে ৫৮০টি স্টল।

রাজধানীর উত্তরা থেকে মেলায় আসা রিয়াদ হাসান জানান, শুক্রবারের ছুটি উপভোগ করার জন্য পরিবারের সবাইকে সাথে নিয়ে মেলায় ঘুরতে এসেছি। মেলা থেকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনারও ইচ্ছা আছে। তিনি বলেন, আগে ঘুরাঘুরি করে মেলার বিভিন্ন স্টলগুলো দেখে পরে কেনা-কাটা করবো।

টেস্টি ট্রিট স্টলের কর্মচারী আদনান জানান, শুক্রবারের ছুটির দিনে সকাল ১০টার পর থেকেই মেলা প্রাঙ্গণে সব বয়সী দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের ভিড় হতে শুরু হয়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভিড় বাড়তে থাকে। অন্যান্য দিনের তুলনায় এই দিন আমাদের বেচাকেনাও ভালো।
এ বছরও মেলায় রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সমৃদ্ধ বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন, ই-শপ, শিশুপার্ক, রক্ত সংগ্রহ কেন্দ্র, প্রাথমিক চিকিৎসাকেন্দ্র, মা ও শিশু কেন্দ্র, ফুলের বাগান ও এটিএম বুথ। ১ জানুয়ারি শুরু হওয়া এ মেলা চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত ক্রেতা-দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে মেলা। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য মেলায় প্রবেশে টিকিটের মূল্য ৩০ টাকা ও অপ্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ২০ টাকা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ