Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

কোরআন-সুন্নাহ ছাড়া জাতি শান্তি ও মুক্তি পাবে না -মাহফিলে ছারছীনার পীর সাহেব

কামারখোলা থেকে মো. আবদুর রহমান : | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

 আমীরে হিযবুল্লাহ, ছারছীনা শরীফের পীর সাহেব আলহাজ¦ হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ বলেছেন, আমরা আল্লাহর বান্দা, আখেরী নবীর উম্মত, ইসলাম আল্লাহর মনোনীত ধর্ম। প্রিয় নবী (সা.) এরশাদ করেছেন, আমি তোমাদের মাঝে দুইটি জিনিস রেখে গেলাম। একটি কুরআন, অপরটি সুন্নাহ। তোমরা এই দুইটিকে মজবুতভাবে আঁকড়ে ধরে থাকলে কখনো পথভ্রষ্ট হবে না। পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ জাতি মুসলমানরা আজ বিশে^র দিকে দিকে অমুসলিমদের হাতে মার খাচ্ছে। মুসলমানদের আহাজারিতে আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে আল্লাহর আরশ যেন কেঁপে উঠছে। অমুসলিমদের সহযোগিতা ও তাদের থেকে সুযোগ-সুবিধা নিয়ে, দুনিয়াবী স্বার্থ হাসিলের জন্য মুসলিম নামধারী মুনাফিকরা আজ মুসলমানদের ধ্বংস করার ছেলেখেলায় মেতে উঠেছে। মুসলমানরা কুরআন-সুন্নাহ বাদ দিয়ে বিজাতীয় কৃষ্টি-কালচার নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে। আর এসবই মুসলিম উম্মাহর অধ্বঃপতনের মূল কারণ। এসব থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। হক্কানী পীর-মাশায়েখের অনুসৃত পথে জীবনকে পরিচালিত করতে হবে। দুনিয়াবী শান্তি ও পরকালীন মুক্তির জন্য কুরআন-সুন্নাহর পথে অবশ্যই চলতে হবে এবং অন্যদের চলতে উৎসাহিত করতে হবে।
গতকাল (শুক্রবার) মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলাধীন কামারখোলা খানকায়ে ছালেহিয়া কমপ্লেক্স ময়দানে আয়োজিত তিনদিনব্যাপি বার্ষিক ঈসালে সওয়াব মাহফিল ও হিযবুল্লাহ সম্মেলনের শেষ দিন বাদ জুমা আখেরি মুনাজাতপূর্ব প্রধান অতিথির বক্তব্যে পীর সাহেব একথা বলেন।
মাহফিলের শেষদিন বিশেষ অতিথি ছিলেন মুন্সিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য মাহী বি চৌধুরী, জমইয়াতে হিযবুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমীর আলহাজ¦ হযরত মাওলানা শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দনি আহমদ হুসাইন, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের আরবী বিভাগের অধ্যাপক ড. হাফেজ মাওলানা মো. রুহুল আমিন, অতিরিক্ত নাজেমে আ’লা মাওলানা আলী আকবর, সাবেক জেলা ও দায়রা জজ মৌলভী মো. ইসমাইল মিয়া, পীর ছাহেবের ছোট সাহেবজাদা আলহাজ¦ শাহ্ আবু বকর মো. ছালেহ নেছারুল্লাহ, আলহাজ¦ মোঃ হায়দার হোসাইন প্রমুখ।
মাওলানা আ. জ. ম অহিদুল আলমের উপস্থাপনায় মাহফিলে ওয়াজ করেন- ড. মাওলানা মুফতি কাফীলুদ্দীন সরকার সালেহী, মাওলানা রুহুল আমীন ছালেহী, মাওলানা রুহুল আমিন আফসারী, হাফেজ মাওলানা বোরহানুদ্দীন ছালেহী, মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ আল মাহমুদ, মাওলানা বদরুজজামান রিয়াদ প্রমুখ।
প্রধান অতিথি ঈমান ও আকীদা ঠিক রাখার জন্য সকলকে এলাকায় নিজ উদ্যোগে দ্বীনিয়া মাদরাসা প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি নিজ সন্তানদের দ্বীনিয়া শিক্ষায় শিক্ষিত করার আহবান জানান। হযরত পীর সাহেব দেশ-জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি ও সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আখেরি মুনাজাত করেন। দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমান মাহফিলে অংশ গ্রহণ করেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন