Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৬ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

চীনে ছড়িয়ে পড়েছে রহস্যজনক ভাইরাস, অসুস্থ ২০০০, নিহত ২

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২০, ৩:৩০ পিএম

চীনে গত কয়েক দিন ধরে ছড়িয়ে পড়েছে রহস্যজনক ভাইরাস। এতে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন দেশটির শত শত নাগরিক।
এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুজন মারা যাওয়ার খবর বলা হলেও মৃতের সংখ্যা আরও বেশি বলে ধারণা করছেন সে দেশের নাগরিকরা।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কমপক্ষে ২০০০ জন। তবে প্রকৃতপক্ষে এই সংখ্যা আরও বেশি বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক নেইল ফার্গুসন।
ইতিমধ্যে ভাইরাসের আক্রমণ বিষয়ে চীনের নাগরিকদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে দেশটির সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ওয়েইবোতে নানা গুজব ছড়ানো হচ্ছে। দেশটির বিভিন্ন শহরে অনেককে মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা যাচ্ছে।
যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে এই ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। শহরটির সামুদ্রিক খাবার বিক্রির একটি বাজার থেকে সর্বপ্রথম ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে।
উহানে গত সপ্তাহে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১২ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় হেলথ কমিশন। এদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা গুরুতর।
রোগের প্রাদুর্ভাব নিয়ে গবেষণা করা অধ্যাপক নেইল ফার্গুসন বলেন, এক সপ্তাহ আগের চেয়ে আমি এখন এই বিষয়ে অনেক বেশি উদ্বিগ্ন।
নতুন এই ভাইরাসের সঙ্গে প্রাণঘাতী রোগ সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিনড্রোমের (সার্স) মিল থাকায় চীনের নাগরিকদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা ধরনের গুজব ছড়িয়ে পড়েছে।
চীনের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র জানিয়েছে, এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরে প্রথমেই যে লক্ষণগুলো পাওয়া গেছে সেগুলো হলো, শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি, কাশি। এ থেকে প্রথমেই মনে হতে পারে যে রোগী নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন। অনেকটা নিউমোনিয়ার মতোই এই ভাইরাসটি এক ধরনের করোনা ভাইরাস।
উহান হেলথ কমিশন জানিয়েছে, রহস্যজনক এই ভাইরাসে অনেকে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ১২ জন হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেও পাঁচজন এখনও চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাদের অবস্থা বেশ গুরুতর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন