Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ০২ রজব ১৪৪১ হিজরী

রাজবাড়ীতে মুড়িকাটার পর এবার হালি পেঁয়াজ চাষ

রাজবাড়ী জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৯ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

মুড়িকাটা পেঁয়াজের ভালো দাম পাওয়ায় এখন হালি পেঁয়াজ রোপন শুরু করেছেন রাজবাড়ীর কৃষকরা। পেঁয়াজ আবাদের ভরা মৌসুম। মুড়িকাটা পেঁয়াজ তোলার সাথে সাথেই একই জমিতে রোপন করা হচ্ছে হালি পেঁয়াজ। যেন কৃষকের দম ফেলারও সময় নেই। পেঁয়াজের দাম আকাশচুম্বি তাই কাক ডাকা ভোর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। মসলা জাতীয় এই ফসলের ভালো দাম পাওয়ায় এখন পেঁয়াজের পর আবার পেঁয়াজ চাষই তাদের লক্ষ্য।

মুড়িকাটার মতো হালি পেঁয়াজেও ভালো দাম মিলবে বলে আশা করছেন তারা। তিন মাস পরেই বাজারে আসবে এই পেঁয়াজ তখনই বাজার স্বাভাবিক হবে বলে মনে করছেন কৃষকরা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্যমতে, এ বছরও রাজবাড়ীতে ২৮,২৯৫ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ থেকে ৩ লাখ ১১ হাজার ৬৮ মেট্রিক টন পেঁয়াজ উৎপাদন হবে বলে আশা কৃষি বিভাগের।

রাজবাড়ী জেলার কালুখালী উপজেলার হরিণ বাড়িয়ার চর এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, সেখানে মাঠের পর মাঠ শুধু শীতকালীন সবজি আবাদ হয়েছে। যার মধ্যে পেঁয়াজই বেশি। এরইমধ্যে ৬০ ভাগ মুড়িকাটা পেঁয়াজ তোলা হয়েছে। যে জমিতে মুড়িকাটা পেয়াজ তোলা শেষ হয়েছে সেই জমিতে আবার নতুন করে রোপন করা হচ্ছে হালি জাতের পেঁয়াজ। সারিবদ্ধভাবে পেঁয়াজ রোপন করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।

কৃষক আরজু মনি জানান, এখন রাজবাড়ীর বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে একশ’ থেকে একশ’ দশ টাকায়। বাজারে প্রচুর পেঁয়াজ রয়েছে। সিন্ডিকেট ও অসাধু ব্যবসায়ীদের কারণেই ঢাকায় পেঁয়াজ দ্বিগুন দামে কিনতে হচ্ছে।

বেলগাছি এলাকার কৃষক শেখ খায়রুল ইসলাম বলেন, এই অঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষ কৃষি কাজের সাথে সম্পৃক্ত। পেঁয়াজের ভালো দাম পেয়ে আমরা অত্যন্ত খুশি তাই এখন হালি পেঁয়াজ রোপন করছি। তবে কৃষি বিভাগের কোন কর্মকর্তা মাঠ পর্যায়ে আসে না, আমাদের কোন পরামর্র্শ দেয় না। মাঝে মধ্যে ঔষধ কোম্পানির লোক আসে। কৃষি কর্মকর্তারা সঠিক পরামর্শ প্রদান করলে আমরা আরো লাভবান হতে পারতাম।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর রাজবাড়ীর উপ-পরিচালক গোপাল কৃঞ্চ দাস বলেন, রাজবাড়ীতে মুড়িকাটা, দানা ও হালি পেঁয়াজ আবাদ হয়। এ বছর পেঁয়াজ পরিপক্ক হওয়ার আগেই চাষীরা উত্তোলন করে ফেলেছে যে কারণে উৎপাদন কম হলেও দাম পেয়েছে ভালো। ভালো দাম পাওয়ার কারণে পেঁয়াজ চাষেই ঝুঁকছেন তারা। চাষীদের বিভিন্ন পরামর্শ দেয়া হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ