Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

বগুড়ায় মরহুম আব্দুল মান্নান এমপির দাফন সম্পন্ন

বগুড়া ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২০ জানুয়ারি, ২০২০, ৮:৩০ পিএম

বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মান্নান এমপি। তার মরদেহ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় (গার্ড অব অনার) শেষে কয়েক দফা নামাজে জানাযা শেষে নিজ গ্রামের বাড়ি বগুড়ার সারিয়াকান্দি কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন স্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে।
সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারে তার লাশ বগুড়ার সোনাতলা সরকারি মডেল হাইস্কুল এন্ড কলেজ মাঠে নিয়ে আসা হয়। এরপর লাশবাহী গাড়িতে করে সোনাতলা শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রায় ঘন্টাকালব্যাপি সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয় লাশ দেখার জন্য। শুধু সোনাতলা নয়, পার্শ্ববর্তী গাবতলী, সাঘাটা, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার হাজার হাজার মানুষ এক নজর দেখার জন্য ভীড় জমায়। বিভিন্ন মাধ্যমে হাজারো জনতা উপস্থিত হয় ওই স্টেডিয়াম মাঠে।
সেখানে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার এড. ফজলে রাব্বী মিয়া তার বক্তব্য বলেন, আব্দুল মান্নান একজন কর্মবীর মানুষ ছিলেন। তার প্রচেষ্টায় সোনাতলা-সারিয়াকান্দির চেহারা পাল্টে গেছে।
কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক তার বক্তব্যে বলেন, ইতিহাসের স্বর্ন অক্ষরে আব্দুল মান্নানের নাম লেখা থাকবে। তার অভাব কোনদিন পূরণ হবে না। এ ধরনের ত্যাগী নেতার মৃত্যুতে শুধু দল নয়, দেশেরও ক্ষতি সাধিত হলো।
সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার এড. ফজলে রাব্বী মিয়া, কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন শফিক, বগুড়ার জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ, এমপি মনোয়ার চৌধুরী, পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান মন্ডল, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ ।
এরপর সংসদ সদস্য ও বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নানের মরদেহ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় (গার্ড অব অনার) প্রদান করা হয়। এরপর তার কফিনে ডেপুটি স্পীকার, কৃষিমন্ত্রী, জেলা প্রশাসক, বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগ, বগুড়া প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ, উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা আওয়ামীলীগ, জেলা ছাত্রলীগ, সোনাতলা প্রেসক্লাব সহ বিভিন্ন সংগঠন ও রাজনৈতিক নেতাকর্মী, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে তার কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করেন।
এরপর শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম মাঠে সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের দ্বিতীয় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে লাশবাহী আলিফ মেডিকেল সার্ভিসের এম্বুলেন্সে করে তার লাশ বগুড়ার সারিয়াকান্দি সারিয়াকান্দি ডিগ্রী কলেজ মাঠে বেলা সাড়ে ৩টায় নিয়ে যাওয়া হয়। সকাল থেকে প্রিয় সন্তানের লাশ শেষবারের মতো দেখার জন্য সকাল থেকে ভীড় জমাতে থাকে ওই কলেজ মাঠে হাজার হাজার বিভিন্ন বয়সী লোকজন। প্রিয় সন্তানের লাশ এক নজর দেখার জন্য শুধু কলেজ মাঠ নয়, আশপাশের রাস্তায় প্রায় ১ কিলোমিটার জুড়ে রাস্তায় অবস্থান নেয় লোকজন। প্রায় তিন ঘন্টা সবার জন্য লাশ দেখার সুযোগ করে দেয়া হয়। এরপর তৃতীয় নামাজে জানাযা শেষে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন স্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। তার নামাজে জানাজায় হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় তার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। তার কফিনে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, স্পীকার ড. শিরিন শারমিন, ডেপুটি স্পীকার ফজলে রাব্বী মিয়া, বিরোধি দলীয় নেতা সহ সহকর্মী বৃন্দ ও রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দাফন সম্পন্ন

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৩ নভেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন