Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী

ট্রাফিক সিগন্যালের অব্যবস্থাপনা প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

ট্রাফিক পুলিশের বিধি প্রণয়নের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী ৩০ দিনের মধ্যে ট্রাফিক বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনারকে এ বিষয়ে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিচারপতি এম.ইনায়েতুর রহিম এবং বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের ডিভিশন বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদেশের পাশাপাশি ট্রাফিক সিগন্যালের লাইট অব্যবস্থাপনার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না-এই মর্মে রুলও জারি করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র সচিব, মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের মহাপরির্দশক, ডিএমপি কমিশনার, কমিশনার ট্রাফিক, দুই সিটি করপোরেশনের সিইও-সহ সংশ্লিষ্টদেরকে ৪ সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। রিটের পক্ষে শুনানি করেন আবেদনকারী ব্যারিস্টার মনোজ কুমার ভৌমিক নিজেই। এর আগে গত ১৯ জানুয়ারি মনোজ কুমার ভৌমিক হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি দায়ের করেন। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে রিটে ট্রাফিক সিগন্যালের বিষয়ে অপারেটিভ সিগন্যাল সিস্টেম মনিটরিংয়ে অব্যবস্থাপনার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে এ রিট করা হয়। আবেদনে বলা হয়, দিনের পর দিন ট্রাফিক সিগন্যালের অব্যবস্থাপনার জন্যে অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা ঘটছে। ঠিক মতো ট্রাফিক সিগনালের লাইট জলছে না। আবার বাতি জ্বলতে থাকলেও ট্রাফিক পুলিশ হাতের ইশারায় গাড়ি থামাচ্ছেন বা চলার নির্দেশনা দিচ্ছেন। শুনানি শেষে উপরোক্ত আদেশ এবং রুল জারি করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হাইকোর্ট

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
২৭ আগস্ট, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ