Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

পাবনায় গৃহবধূকে নির্যাতনের পর মাথার চুল কেটে দেওয়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার,পাবনা | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ৩:২৫ পিএম

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার খানমরিচ ইউপি’র সুলতানপুর গ্রামে খাদিজা খাতুন (২৫) নামে এক গৃহবধূর চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ীর বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। মারধর করে এই গৃহবধূকে ঘরে আটকে রাখা হয় । বৃহষ্পতিবার অর্থাৎ শুক্রবার ভোর রাতে তিনি কৌশলে পালিয়ে প্রতিবেশী এক মামার বাড়ীতে আশ্রয় নেন। শুক্রবার গৃহবধূ খাদিজা খাতুন নিজে ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
উপজেলার সুলতানপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ওই গৃহবধূর উপর শারীরিক নির্যাতনের পর তার মুখ, হাত পা বেঁধে তার চুল কেটে দেওয়া হয়। খাদিজা একই গ্রামের শাহেদ ফকিরের স্ত্রী।
তিনি দুই সন্তানের জননী। পারিবারিক অভাব-অনটন নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মাঝে মধ্যেই ঝগড়া হতো । এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় খাদিজাকে স্বামী শাহেদ, শ্বশুর মালেক ফকির ও শাশুড়ী শাহিদা খাতুন প্রচন্ড মারধর করে। এর জের ধরে রাত তিনটার দিকে খাদিজার শয়ন ঘরে ঢুকে তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ী হাত-পা ও মুখ গামছা দিয়ে বেঁধে ফেলে
এবং কাঁচি দিয়ে তার মাথার চুল কেটে দেয়। পরে এ ঘটনা কারও কাছে প্রকাশ না করার শর্তে খাদিজার বাঁধন খুলে দেওয়া হয়। ভোরে সুযোগ বুঝে খাদিজা বাড়ীর থেকে বের হয়ে পাশে তার মামা আবুল কালামের বাড়ীতে আশ্রয়। আজ শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে খাদিজা তার মামাকে সাথে নিয়ে ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ।
ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মাসুদ রানা অভিযোগ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আসামীদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গৃহবধূকে নির্যাতন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ