Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

বাংলাদেশে এখন ভয়ের চাষ হচ্ছে আলোচনা সভায় মান্না

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

নাগরিক ঐক্যের আহŸায়ক মাহামুদুর রহমান মান্না বলেছেন, দেশের মধ্যে অপশাসন, দু:শাসন ও কুশাসকের বিরুদ্ধে কথা বলা যায় না। বাংলাদেশের সর্বত্র এক ভীতিকর অবস্থা বিরাজ করছে। সবখানে এখন ভয়ের চাষ হচ্ছে। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবে যুব জাগপা নেতা মাসুদ রায়হানের স্মরণে ‘গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠান বিদ্রোহ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
মান্না বলেন, আগে দেশ রক্ষায় সাধারণ জনগণ যেভাবে বক্তৃতা দিয়েছে, বুদ্ধিজীবীরা যেভাবে কথা বলেছে, পাকিস্তানের স্বৈরাচারীদের বিরুদ্ধে যেভাবে কথা বলেছে এখন দেশের মধ্যে অপশাসন, দু:শাসন, কুশাসকের বিরুদ্ধে কথা বলার ক্ষমতা কারও নেই। মানুষের বাক স্বাধীনতর প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, এ সরকারের কাছে আগে টকশো তিতা লাগতো, এখন মানুষের কাছে তিতা লাগে। পাঁচ বছর আগে টকশো দেখার জন্য আগে থেকে মানুষ বসে থাকতো। এখন মানুষ শুনতে চায় না। বর্তমানের জেনারেশনের কথা বলি তারাতো টিভির কাছেই যেতে চাইনা, বরং তাদের কাছে মোবাইলের ফেসবুক অনেক ভালো।
তিনি বলেন, একটি রাজনৈতিক দল কিভাবে স্বৈরাচারী দল হয়ে গেছে সেটা আমরা দেখেছি। নির্বাচনের ৩০০ সিটের মধ্যে অর্ধেকের বেশি সিট আগে থেকেই নির্বাচিত হয়ে যায়। নির্বাচনের আগের দিন রাতে ব্যালটে সিল মেরে ভোটের বাক্স ভরা হয়। আজ জনগণ পরাজিত হচ্ছে। ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচনের কৌশলে পরিবর্তন করতে যাচ্ছে। ইভিএম তো মানুষ তৈরি করেছে তার নিজের কাজের জন্য। মানুষ যা বললে সে তাই করবে। দেখা যাবে আপনি তিনটা ভোট দিলেন দুইভোট ওদের পক্ষ চলে যাচ্ছে। যেটা নিয়ে যে আপনি চ্যালেঞ্জ করবেন, মামলা করবেন সেটারও সুযোগ নেই। কারণ আপনি কোনো রশিদ পাচ্ছে না।
মান্না বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের ভোটের আগে কত প্রতিশ্রæতি দিয়েছে সরকার। সেগুলোর কয়টা বাস্তোয়ন হয়েছে। বাংলাদেশে প্রায় ১ কোটির বেশি শিক্ষিত বেকার রয়েছে। নির্বাচনের সময় সরকার বলেছে প্রতিবছর নতুন করে চাকরি দেওয়া হবে। কিন্তু হচ্ছে না, শুধু পুলিশের নিয়োগ বেশি দেওয়া হচ্ছে। কারণ সরকার ক্ষমতা থাকতে হলে পুলিশের দরকার রয়েছে। আমাদের আন্দোলনের কৌশল অবলম্বন করতে হবে। উঁচু নিচু দেখে সামনের দিকে এগুতেই হবে। যে কোনো সময় আন্দোলনের ডাক আসতে পারে।
আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, জাগপা সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, যুব জাগপার সভাপতি আরিফুল হক তুহিনসহ অনেকেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মান্না

৫ মার্চ, ২০২০
৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ