Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৬ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আত্মহত্যা করলেন ভারতের অভিনেত্রী সেজাল শর্মা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২০, ৩:১৮ পিএম

ভারতের ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সেজাল শর্মা আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল শুক্রবার মুম্বাইয়ে মিরা রোডে তার নিজ ফ্ল্যাটে তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন বলে দাবি পুলিশের। এ সময় তার ফ্ল্যাট থেকে একটি সুইসাইড নোটও উদ্ধার করা হয়।

আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সেজালের সহ-অভিনেতা অরু কে ভার্মা। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘হ্যা, এটা সত্যি। এই খবর শুনে আমি স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছি। আমি এখনো বিশ্বাস করতে পারছি না। ১০ দিন আগেই ওর সঙ্গে আমার দেখা হয়েছিল। রোববার হোয়াটসঅ্যাপে অনেকক্ষণ চ্যাটও করেছি। তখনও তো সবই ঠিকই ছিল।’ তখনো এমন কান্ড করতে চলেছেন তা বুঝতে পারেননি তিনি। অন্তেস্ট্রির জন্য সেজালের লাশ তার পরিবার উদয়পুর নিয়ে গেছে বলেও জানান অরু।
সংবাদ সংস্থার খবর অনুসারে, ইতিমধ্যেই আত্মহত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্তও করা হচ্ছে। যদিও তিনি কেন আত্মহত্যা করেছেন সে বিষয়টি এখনো স্পষ্ট নয়।

পুলিশ জানিয়েছে, সেজালকে ভোর পাঁচটার দিকে তার শোবার ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। তিনি একটি সুইসাইড নোট লিখে গেছেন। এতে তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ি নয় বলে জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী। এ বিষয়ে তদন্ত করছে পুলিশ। এ বিষয়ে তার দুই বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। তাদের একজন এই অভিনেত্রীর রুমমেট।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে- বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রাতে কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে ফোনে অনেকক্ষণ কথা হয় সেজালের। তারপর শুক্রবার আত্মহত্যা করেন তিনি। এই দু’টি ঘটনার মধ্যে কোনও যোগসূত্র রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

২৬ বছর বয়সি সেজাল স্টার প্লাসের দিল তো হ্যাপি অ্যায় জি সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন। ধারাবাহিকটি ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে শুরু হয়ে আগস্টেই হঠাৎ বন্ধ হয়ে যায়। এতে সিমি খোসলা নামের একটি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি।

সেজালের বাড়ি রাজস্থানে। ২০১৭ সালে অভিনয় ক্যারিয়ার গড়তে মুম্বাইয়ে আসেন। দিল তো হ্যাপি অ্যায় জি ছিল তার প্রথম সিরিয়াল। এছাড়া একাধিক বিজ্ঞাপনেও কাজ করেছেন তিনি। এর মধ্যে ক্রিকেটার রোহিত শর্মা ও হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গেও তার বিজ্ঞাপন রয়েছে।



 

Show all comments
  • Shahadat ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০৮ এএম says : 0
    So sad
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন