Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

যারা ভয় দেখাচ্ছেন তারাই ভোটারদের বেশি ভয় পায়- তাবিথ আউয়াল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২০, ৬:১৬ পিএম

প্রতিপক্ষের শত বাধা সত্ত্বেও শৃঙ্খলা ভঙ্গ না করার আহবান জানিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। তিনি বলেন, আমাদের মূল শক্তি হচ্ছে জনগণ, তারা আমাদের সঙ্গে আছেন। প্রচারে নেমে আমরা নগরবাসীর ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। নির্বাচনী মাঠে আর কোনো অঘটন ঘটুক, তা চাই না। যতো বাধা আসুক আমরা শৃঙ্খলা ভাঙবো না। সামনের সাত দিন কঠিন সময়। নির্বাচন থেকে দূরে সরাতে আপনাদের ভয়-ভীতি দেখানো হবে। আপনার ভয় পাবেন না। সাহস নিয়ে ভোট কেন্দ্রে যাবেন। আসলে ভয় যারা দেখাচ্ছেন তারা আপনাদেরকে বেশি ভয় পায়।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) মিরপুর এলাকার ৬, ২ ও ১৫ নং ওয়ার্ডে কয়েকটি নির্বাচনী পথসভায় অংশ নিয়ে তাবিথ আউয়াল এসব কথা বলেন।

ইভিএমের ব্যাপারে আবারো জোর আপত্তি জানিয়ে ধানের শীষের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বলেন, আমরা ইসিকে অনুরোধ করছি, সব যুক্তিগুলো আমলে নিয়ে এ নির্বাচনের জন্য ইভিএম বন্ধ রাখুন। অন্তত এ নির্বাচনে ব্যালটে ভোট নিন। ভবিষ্যতে সব রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে এ বিষয়ে করণীয় ঠিক করা যাবে।’

সকাল ১১টায় মিরপুর ৬নং সেকশন কাঁচাবাজার এলাকায় পথসভা করার মধ্য দিয়ে ১৬তম দিনের মতো নির্বাচনী প্রচার শুরু করেন তাবিথ। দিনের প্রতিটি সভায় নেতা-কর্মী ও সাধারণ ভোটারদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। নেতা-কর্মীরা ধানের শীষ ধানের শীষ স্লোগানে মিরপুরের নানা অলিগলি প্রকম্পিত করে তোলেন। মাইকিং করে স্থানীয়দের ভোট চাওয়া হয়। মেয়র প্রার্থী নিজে দিনভর ধানের শীষের লিফলেট বিতরণ করেন। এলাকার মুরব্বীদের তিনি বুকে জড়িয়ে ধরেন।

এসময় ধানের শীষের প্রচারণায় হামলা ও নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা প্রসঙ্গে তাবিথ আউয়াল বলেন, ‘দুঃখজনকভাবে বলতে হচ্ছে, নির্বাচন কমিশন যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করেননি। এজন্য সামগ্রিকভাবে নির্বাচনে একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। তারপরও আমাদের মনোবল শক্ত আছে, আমরা ইতিবাচক ভূমিকায় আছি, এ ভূমিকায়ই থাকবো। তিনি বলেন, ভোটারদের মন এখন ১ ফেব্রæয়ারির দিকে। ভোটাররা কেন্দ্রে গিয়ে সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারলে আমরা জয়লাভ করবো।

স্থানীয়দের উদ্দেশ্যে তাবিথ আউয়াল বলেন, মিরপুরে চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসা চলছে। আমরা বিজয়ী হলে এসব নির্মূলে কাজ করবো। কাউকে অন্যায় করতে দেয়া হবে না। মিরপুর গার্মেন্ট শিল্প এলাকা। এখানে কর্মীদের নিরাপত্তা নেই। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা কাজ করবো। বিএনপির এ মেয়র প্রার্থী বলেন, বস্তিবাসীদের উচ্ছেদ করতে বারবার পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগিয়ে দেয়া হচ্ছে। এতে বস্তিবাসীরা অনেক কষ্টে আছেন। আমরা নির্বাচিত হতে পারলে তাদেরকে পূনর্বাসন করা হবে।

দুর্নীতি ও দুঃশাসনের সাথে আপোস করেন নাই বলেই বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে উল্লেখ করে তাবিথ আউয়াল বলেন, ১ ফেব্রæয়ারি ধানের শীষে ভোট দিলে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির পথ তরান্বিত হবে।

এ পথসভায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা জয়নুল আবদিন ফারুক, আমিনুল হক, ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মাহফুজ হোসাইন খান সুমন, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন দুলু, বিএনপি নেতা এবিএম রাজ্জাক, সফিকুল ইসলাম মিল্টন, ড. এমতাজ হোসেনসহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা। মিরপুরে গণসংযোগ শেষ করে তাবিথ আউয়াল দুপুর ২টায় ইসিবি চত্ত¡রে পথসভা ও গণসংযোগ করেন। এসময় তিনি এলাকাসীকে নির্ভয়ে ভোট দেয়ার আহবান জানান। তিনি এলাকার উন্নয়নে নানা প্রতিশ্রুতি দেন। এরপর ১৫ নং ওয়ার্ডের স্থানীয় মাটিকাটা বাজারে পথসভায় বক্তব্য রাখেন।

তাবিথ আউয়াল বলেন, অতীতে আপনাদের যতো প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে, আপনাদের যতো দাবিগুলো রয়েছে সেসব দাবি ও প্রতিশ্রæতিগুলো বাস্তবায়নের সময় এসে গেছে। আপনারা ধানের শীষে ভোট দিয়ে আমাকে সেই সুযোগ দেবেন।

তিনি বলেন, যে এলাকার বাজারেই যাই দেখি দ্রব্যমূল্য অসহনীয় পর্যায়ে রয়েছে। এই এলাকায় শিশুরা ও মা-বোনেরা রাতে নির্ভয়ে চলাচল করতে পারেন না। তাদের নিরাপত্তার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। এখানে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খুবই করুণ। খেলার মাঠ নেই, বাতাস দুঃষিত। দূষণ মুক্ত পরিবেশ তৈরির জন্য আদালত রায় দিয়েছে। যারা অতীতে দায়িত্বে ছিলেন, তারা আদালতের রায় মানে নাই। জনগণের দাবিও তারা পূরণ করে নাই। আমাদের দায়িত্ব দিলে আমরা জনগণের এসব দাবি বাস্তবায়নের চেষ্টা করবো। এরপর তাবিথ আউয়াল ভাষানটেক পকেট গেট, ভাষাণটেক কাঁচাবাজার, মানিকদি মাঠের মোড়, বালুরঘাটে, আজিজ মার্কেটে, হাজী মার্কেটে ও আলাউদ্দিরটেকে পথসভা ও গণসংযোগ করেন। মিরপুর ১৪ নম্বর মোড়ে পথসভার মাধ্যমে এদিনের গণসংযোগ শেষ হয়। এ সময় তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ স্বৈরাচার। তাদের কাছে কালোটাকা ও পেশীশক্তি আছে, আমাদের পক্ষে আছে জনগণ।

এদিকে তাবিথ আউয়ালের মা নাসরিন ফাতেমা আউয়াল আজ কাওলা ও দক্ষিণ খান এলাকায় গণসংযোগ করেছেন। এ সময় মহিলা দলের নেতা-কর্মীরা তার সঙ্গে ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ