Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৫ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ভয়াবহ হচ্ছে করোনাভাইরাস

চীনে নিহত বেড়ে ৪১ ভারতে ১১ জন কোয়ারেন্টাইনে ১০ দেশে আক্রান্ত ১৩০০

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

নিউমোনিয়া সদৃশ নতুন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার পর ইউরোপ-আমেরিকা অঞ্চলে বেশকিছু দেশ, এমনকি দক্ষিণ এশিয়ার ভারত, সিঙ্গাপুর, নেপালেও ভাইরাসটিতে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান মিলেছে। মহামারি ঠেকাতে বিভিন্ন দেশের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের তুমুল লড়াইয়ের মধ্যে চীনসহ ১২ দেশে নতুন এ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার ৩০০ ছাড়িয়ে গেছে। একদিনের ব্যবধানে মৃতের সংখ্যাও ২৬ থেকে বেড়ে ৪১ হয়েছে বলে চীনের কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।

ভারতে চীনের এই ভয়ঙ্কর ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। চীন থেকে ভারতে ফেরা ১১ ব্যক্তির শরীরে ওই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার প্রাথমিক লক্ষণের দেখা মিলেছে। ফলে স্বাভাবিক জনজীবন থেকে আলাদা করে রাখা হয়েছে তাদের। কেরালায় ৭ জন, মুম্বাইয়ে ২ জন এবং বেঙ্গালুরু ও হায়দরাবাদে ১ জন করে ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ দেখতে পাওয়া গেছে। ফলে চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে তাদের।

এদিকে চীনে নিহতদের মধ্যে ভাইরাসটির বিরুদ্ধে লড়াইরত এক চিকিৎসকও আছেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো বলছে। হুবেইর উহানে জিনহুয়া হাসপাতালের ৬২ বছর বয়সী চিকিৎসক লিয়াং উডং-এর মৃত্যুর খবর জানিয়ে টুইট করেছে চীনের গ্লোবাল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক। উহানেই প্রাণঘাতী এ ভাইরাসটির প্রথম দেখা মেলে। সংক্রমণের বিস্তৃতি ঠেকাতে গত কয়েকদিন ধরে শহরটিকে কার্যত বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে। চীনে ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যা গতকাল পর্যন্ত এক হাজার ২৮৭-তে পৌঁছেছে বলে দেশটির ন্যাশনাল হেলথ কমিশন নিশ্চিত করেছে।

এর বাইরে থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, সিঙ্গাপুর, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, নেপাল, ফ্রান্স, মালয়েশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ায়ও আক্রান্ত ব্যক্তির সন্ধান পাওয়া গেছে। উহান থেকে ১৯ জানুয়ারি আসা এক চীনা নাগরিকের শরীরে করোনাভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে অস্ট্রেলিয়া। মেলবোর্নের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বয়স ৫০ এর ঘরে থাকা ওই ব্যক্তির পরিস্থিতি স্থিতিশীল বলেও জানিয়েছে তারা। ‘চীনের বাইরেও যে পরিমাণ আক্রান্তের খোঁজ মিলছে, আর উহান থেকে অস্ট্রেলিয়ায় আসা মানুষের সংখ্যা বিবেচনায় এটা অসম্ভব নয় যে আমরা এ ধরনের আরও কিছু আক্রান্ত ব্যক্তির খোঁজ পাবো,’ সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রেন্ডন মারফি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ফরাসী কর্তৃপক্ষ ইউরোপে নতুন করোনাভাইরাসটিতে আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তির উপস্থিতির খবর নিশ্চিত করে। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন জানিয়েছে, তারা প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ৬৩ জনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন; এর মধ্যে দুই ব্যক্তির শরীরে ভাইরাসটির উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়া গেছে। আক্রান্ত দুই ব্যক্তিই উহান থেকে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন, বলেছে তারা।
চীনে পড়তে যাওয়া এক শিক্ষার্থীর দেহে ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়ার কথা জানিয়েছে নেপাল। শুক্রবার এক ঘোষণায় দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ একথা জানায়। গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষও তিন নাগরিকের শরীরে ভাইরাসটির উপস্থিতি সনাক্তের তথ্য দেয় বলে স্ট্রেইট টাইমস জানিয়েছে। গত সপ্তাহে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডবিøউএইচও) নতুন এ করোনাভাইরাসটির কারণে চীনে জরুরি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে বলে ঘোষণা করলেও এখনি আন্তর্জাতিকভাবে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেনি বলে জানিয়েছিল।

নতুন চান্দ্রবর্ষ উদযাপন সামনে রেখে ঘরমুখী মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে শুক্রবার থেকে চীন ১০টি শহরে গণপরিবহন ও সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোর মন্দির বন্ধ করে দিয়েছে। পর্যটকদের অন্যতম গন্তব্য ‘নিষিদ্ধ শহর’ ও গ্রেট ওয়ালের একটি অংশও বন্ধ রাখা হয়েছে বলে রয়টার্স জানিয়েছে। চীনা নববর্ষের সপ্তাহব্যাপী ছুটির মধ্যে দেশটির কোটি কোটি মানুষ একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে যাতায়াত করলে ভাইরাসটি ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সূত্র : রয়টার্স, এনডিটিভি।



 

Show all comments
  • Imran Ali ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৪৯ এএম says : 0
    আল্লাহ পক্ষ থেকে যখন ম্যার পাওনা হয়ে যায়, তখন কেহ বাচাতে পারেনা, এই চীনই মুসলিমদের এত নির্যাতন করেছে তা কল্পনা করা যায় না। আরো বলে কোরঅান নতুন করে লিখবে, সর্বশেষে সবকিছু রক্ষা করার দায়িত্ব আল্লাহ নিজেই নিয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • সওদাগর শাহীন আলী ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    আল্লাহ আপনি সমস্ত সৃষ্টির প্রতিপালক, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আল্লাহ আপনি মানবজাতির প্রতি সহায়হোন এবং সবাই কে হেফাজত করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • Farhana Tasmim Aziza ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    আল্লাহ আমাদের মুসলিম ভাই বোনদের হেফাজত করুক আর যেসব জালেমরা, আমাদের মুসলিম ভাই বোনেদের বন্দি করে অত্যাচার নির্যাতন করেছে আল্লাহ ইনসাফ দেখো তারাই আজ ভাইরাসের ভয়ে নিজেদের বন্দি করে রেখেছে। আল্লাহর কুরআন পরিবর্রতন করতে চেয়েছিল তার জাবাব, কিছু হিন্দু নাস্তিকেরা বলে চীনে মুসলিমদের মারছে ঠিক করছে জঙ্গিদের এইভাবে মারতে হবে তোদের আল্লাহ কেন চুপ? আল্লাহ চুপ নয় আল্লাহ তার ওয়াদা সঠিক ভাবেই করছেন তিনি কেয়ামত পর্যন্ত সময় দিয়েছেন। আল্লাহ তার ওয়াদা পুর্ণ করবেন। - "আর আল্লাহ যদি মানবজাতিকে তাদের যুলমের কারণে পাকড়াও করতেন, তবে তাতে (যমীনে) কোনো বিচরণকারী প্রাণীকেই ছাড়তেন না। তবে আল্লাহ তাদেরকে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত অবকাশ দেন। যখন তাদের নির্দিষ্ট সময় চলে আসে, তখন এক মুহূর্তও পেছাতে পারে না, এবং আগাতেও পারে না।" সূরা আন নাহল , আয়াত ৬১
    Total Reply(0) Reply
  • Kisir Misir ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    বাংলাদেশীদের নিয়ে ভয় নাই। কারণ ভাইরাস আমাদের ভয় পায়। আমরা যে পরিবেশে বাসকরি তা ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাসের মহাসমুদ্র। আমাদের শরীর রেজিন্টান্ট হয়ে আছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Raju Khan ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    চিনে বসবাসকারি সকল বাংলাদেশিকে ফিরে আসা উচিৎ
    Total Reply(0) Reply
  • Zainab Zakira ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    আল্লাহ প্রতিটি মুসলিম ভাই বোন হেফাজত করো।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন