Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

চীনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৮০, আশঙ্কাজনক ৩০০

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৭ এএম

করোনাভাইরাস সংক্রমণে চীনে মৃতের সংখ্যা আরো বেড়েছে। নিশ্চিত করে বলা হয়েছে, নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে কমপক্ষে ৮০। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩০০০। পরিস্থিতির ভয়াবহতায় নববর্ষের ছুটি রোববার পর্যন্ত তিনদিন বাড়ানো হয়েছে। অন্যদিকে এই ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল হুবেই প্রদেশের উহান এখনও অবরুদ্ধ হয়ে আছে। বেশ কিছু শহরে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে। অনলাইন বিবিসি বলছে, স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্মকর্তারা আজ সোমবার নিশ্চিত করেছেন যে, শুধু হুবেই প্রদেশে নিহতের সংখ্যা ৫৬ থেকে বেড়ে ৭৬-এ দাঁড়িয়েছে। বাকি চার জনের মৃত্যু হয়েছে অন্য জায়গায়।

নিশ্চিত করে বলা হয়েছে, আক্রান্তের সংখ্যা ২৭৪৪। রাষ্ট্রীয় মিডিয়া বলছে, তার মধ্যে কমপক্ষে ৩০০ মানুষের অবস্থা আশঙ্কাজনক। চীনের বাইরে ৪১ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া প্রভৃতি দেশ। তবে চীনের বাইরে এই ভাইরাস সংক্রমণে কোনো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

উহান শহর এখনও অচল। এই শহরটিতে বসবাস করেন প্রায় এক কোটি ১০ লাখ মানুষ। শহর থেকে তাদের চলাচল কঠোরভাবে বিধিনিষেধে আটকে রাখা হয়েছে। অপ্রয়োজনীয় যান চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। হুবেই সীমান্তে কর্মীদের প্রবেশ করতে দেয়ার আগে তাদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হচ্ছে। তারপরই এই প্রদেশে প্রবেশের অনুমতি মিলছে। উহানের হাসপাতালগুলোতে জরুরি অবস্থা চলছে। প্রদেশজুড়ে এই ভাইরাস প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ এবং চিকিৎসায় প্রায় ৫ লাখ মেডিকেল স্টাফ যোগ দিয়েছেন। উহানে নির্মাণ করা হচ্ছে দুটি অস্থায়ী হাসপাতাল। রাজধানী উহানের কলকারখানাগুলোতে মাস্ক বা মুখোশ এবং প্রতিরোধ বা নিরাপত্তামুলক পোশাক তৈরিতে ব্যস্ত। শহরের মেয়র ঝাউ সিয়ানওয়াং বলেছেন, সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা বাড়তে পারে। তিনি সতর্কতা দিয়ে বলেন, উহান শহরটি অবরুদ্ধ করে দেয়ার আগে ওই শহর ছেড়ে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ নববর্ষ উপলক্ষে বাইরে গেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

২৮ নভেম্বর, ২০২০
২৮ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন