Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬, ০১ রজব ১৪৪১ হিজরী

জুতার দোকানে অগ্নিকাণ্ডে মৌলভীবাজারে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

মৌলভীবাজার জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫৬ পিএম | আপডেট : ৪:০৫ পিএম, ২৮ জানুয়ারি, ২০২০

মৌলভীবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারে ৫ জন আগুনে পুড়ে মারা গেছেন। এ ঘটনায় ৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
শহররের এম সাইফুর রহমান সড়কের পিংকী সু ষ্টোর নামের একটি জুতার দোকানে সকাল পৌনে ১০টা ভয়াবহ অগ্নিকা-ের এ সূত্রপাত ঘটে। তখন দোকানের সাটার বন্ধ ছিল। মূহুর্থের মধ্যে দোকান থেকে ছড়িয়ে পরে উপরের দু’তালায় আধাকাঁচা ঘরে আগুন। দু’তালায় বসবাস করতেন পরিবার নিয়ে সুভাস রায়। এ সময় আগুনে পুড়ে মারাযান সুভাস রায় (৬০), তার মেয়ে পিয়া রায় (১৯) ও বোন দিপা রায় (৩৫), বাগনে দিপ্তি রায় (৪৫) ও বৈশাখী রায় (৩ বছর) । এ সময় এলাবাসী প্রণয় রায় মনা ও মিলনকে উদ্ধার করে।
মনা রায়কে প্রথমে মৌলভীবাজার ২৫০শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান, মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান। পরে উন্নত চিদিৎসার জন্য তাঁকে একটি বে-সরকারী হাসপাতালে স্থানাস্তরিত করা হয়। মিলন প্রাথমিক চিকিৎসা নেন। চিকিৎসাধিন প্রণয় রায় মনা জানান, তখন তিনি তাদের দোকানের ২য় তলায় ঘুমিয়ে ছিলেন। তার বড় ভাইয়ের স্ত্রী আগুন বলে চিৎকার দিলে তিনি ঘুম থেকে উঠেন। তিনি জানান, কারেন্টের বোর্ড থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়।
আগ্নকিান্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ৪টি ইউনিট প্রায় ২ ঘন্টা কাজ চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। পরে একে একে উদ্ধার করে ৫টি লাশ।
মৌলভীবাজার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স উপপরিচালক মোঃ আব্দুল্লাহ হারুন পাশা জানান, তাদের ধারণা ছিলো বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে প্রথমে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হতে পারে। ঘরের ভিতরে একটি গ্যাস রাইজার ছিলো, পরে ওই রাইজারে আগুন লাগে। তিনি জানান, দোতলায় এবং পেছনের বাসায় তারা থাকতেন। তাদের বের হওয়ার রাস্তা ছিলো দোকানের ভিতর দিয়ে।
জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন জানান, মৌলভীবাজারে অগ্নিকান্ডে ৫ জন নিহতের ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট তানিয়া সুলতানাকে প্রধান করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি ৩ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিবে।
মৌলভীবাজারের জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জানান, এটি একটি মর্মান্তিক ঘটনা। তারা ঘটনাস্থলে আছেন। ক্ষতিগস্থ পরিবারকে সহায়তা করা হবে বলেও তিনি জানান। একই সাথে অগ্নীকান্ডের বিষয়টি তদন্তও করা হবে।
মৌলভীবাজার সিআইডি ইন্সপেক্টর বিকাশ দাশ জানান, ঘটনার পর পরই পুলিশের সাথে সাথে সিআইডির পুরো টিম ঘটনা স্থলে এসে উদ্বার অভিযানে যোগদেন। তিনি জানান, প্রাথমিক ভাবে তারা জানতে পেরেছেন সট সার্কিট থেকে অগ্নীকান্ডের সুত্রপাত। পরে গ্যাসের রাইজার বিষ্পোরণ হয়ে আগুন ছড়িয়ে পরে। তবে পরে তদন্ড সাপেক্ষে পুরো বিষয়টি জানা যাবে।
লাশ উদ্ধার শেষে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালের মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়। বিকেলে শহরের সৈয়ারপুরস্থ শ্মশান ঘাটে দাহ করা হবে।
অগ্নিকা-ে ৫ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুতে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। মন্ত্রী শোকবার্তায় নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অগ্নিকাণ্ড


আরও
আরও পড়ুন