Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৮ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না: তাবিথ আউয়াল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০২০, ৬:৫৪ পিএম

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল বলেছেন, আগামী ১ ফেব্রুয়ারি পরিবর্তনের দিন। আমাদের নিজেদের ভাগ্য এবং গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হলে পরিবর্তনের পক্ষে ধানের শীষ মার্কায় ভোট দিতে হবে। তিনি বলেন, সরকার ভয় পাচ্ছে। কারণ বিএনপির প্রচারে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। গণজোয়ারের কারণে ব্যাপক ভোট পড়বে। ভোট পড়লেই ধানের শীষ জয়ী হবে। এ কারণে আগামী কয়েকদিন তারা ভয়-ভীতি ও গুজব সৃষ্টি করতে পারে। আমরা এ সবকিছুতেই ভয় পাব না। নির্ভয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কেন্দ্রে যেতে হবে। মঙ্গলবার মোহাম্মপুর এলাকায় কয়েকটি পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় ধানের শীষের পাশাপাশি বিএনপি সমর্থিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষেও ভোট চান তাবিথ আউয়াল।

এদিন সকাল ১১ টার দিকে শের সুরী রোডে পথসভায় তাবিথ আউয়াল বলেন, আর মাত্র কয়েকদিন বাকি আছে। ১ ফেব্রুয়ারি আমাদের সবাইকে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে হবে। নইলে আমাদের ভোট চুরি হতে পারে। অন্য কেউ আমাদের ভোট দিয়ে দিবে। তাই সবাইকে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে হবে। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী স্বাভাবিক ও নিরপেক্ষভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করলে পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়া সম্ভব নয়।

তিনি জানান, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে ১০৪ টি অভিযোগ জমা পড়লেও তা আমলে নেওয়া হয়নি। কোনো ব্যবস্থা না নিয়েই ১০২ টি নিস্পত্তি করে দেওয়া হয়েছে। এতে আমাদের মনে যে শঙ্কা আছে তা বাড়াবে। তবু আমরা ইতিবাচকভাবে এগিয়ে যাচ্ছি।

এরপর টাউন হলে আরেকটি পথসভায় নেতা-কর্মী ও এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে তাবিথ আউয়াল বলেন, এটি একটি ঐতিহাসিক স্থান। কিন্তু অবহেলিত হয়ে আছে। নামকরা স্কুল আছে। কিন্তু এখানকার পরিবেশ ভালো নয়। মাদকের ছড়াছড়ি। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিও খারাপ। তাই ১ ফেব্রুয়ারি ভোটের মাধ্যমে আপনারা নিজেদের অধিকার ফিরিয়ে আনবেন। কাউকে ভোট চুরি করতে দেব না। নিজেদের ভোট নিজেই দিব। চুরি রুখে দিতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আতাউর রহমান ঢালী, কেন্দ্রীয় নেতা জহির উদ্দিন স্বপন. নিপুন রায় চৌধুরী, মহানগর উত্তরের বজলুল বাসিত আঞ্জু, সাইফুর রহমান মিহির, এবিএম রাজ্জাক, মহিলা দলের সুলতানা আহমেদ, ৩১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী সাজেদুল হক রনি, ২৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মো. লিটন মাহমুদ বাবু, ৩২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আতিকুল ইসলাম মতিনসহ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এরপর তিনি জাকির হোসেন রোড, কাজী নজরুল ইসলাম রোড কলোনী, নুরজাহার রোড, তাজমহল রোড, কৃষি মার্কেট, জহুরি মহল্লা, শম্পা মার্কেট, আদাবর বাজার, মনসুরাবাদ, শনিরবিল বাজারসহ মিরপুরের ১২ ও ১২ নং ওয়ার্ডেও পথসভা করেন।

এ সময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, ডা. এজেএম জাহিদ হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, এসএ সিদ্দিকী সাজু, আলী আকবর চুন্নু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে তাবিথ আউয়ালের মা নাসরিন ফাতেমা আউয়াল উত্তরা ১৪ সেক্টর, মহাখালী কাঁচাবাজার ও গুলশান লিংক সিটিতে গণসংযোগ করেছেন। তিনি ভোটারদের কাছে লিফলেট বিতরণ করেন। এ সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, বিএনপি নেতা বরকত উল্লাহ বুলু’র স্ত্রী শামীমা বরকত লাকী এবং বরিশালের সাবেক মেয়র মুজিবর রহমান সারোয়ার ও আহসান হাবিব কামালের স্ত্রীরা ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সিটি করপোরেশন নির্বাচন

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ