Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

দুই সিটিতে এক হাজার ৫৯৭টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০৫ এএম

ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনের ১ হাজার ৩১৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ৮৭৬টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ (গুরত্বপূর্ণ)। বাকি ৪৪২টি কেন্দ্রকে সাধারণ ঘোষণা করা হয়েছে। ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে মোট ১১৫০ কেন্দ্রের ভেতরে গুরুত্বপ‚র্ণ কেন্দ্র ৭২১টি এবং সাধারণ কেন্দ্র ৪২৯টি ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।
গতকাল বুধবার বিকেলে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করর্পোরেশন রিটানিং কর্মকর্তারা এ তথ্য জানান। উত্তর সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তা মো.আবুল কাসেম জানান, ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশন নির্বাচনের ১ হাজার ৩১৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ৮৭৬টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ (গুরুত্বপূর্ণ)। বাকি ৪৪২টি কেন্দ্রকে সাধারণ ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি বলেন, উত্তর সিটিতে ৮৭৬টি গুরুত্বপূর্ণ ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র রয়েছে। সাধারণ কেন্দ্রগুলোতে ১৬ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হলেও গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে থাকবে ১৮ জন।

ইসির তথ্য অনুযায়ী, হাজারীবাগ থানার (৩৩ ও ৩৪ নম্বর ওয়ার্ড) ১৭টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৪টি ঝুঁকিপূর্ণ, রামপুরা থানার ৪৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩৭টি ঝুঁকিপূর্ণ। মোহাম্মদপুর থানার ৭২টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ, শেরেবাংলার ৪৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৭টি, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলে ৩৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৪টি, আদাবর থানার ৪২টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১টি, তেজগাঁও থানার ৪০টি কেন্দ্রের ৪০টি ও হাতিরঝিলের ৬৭টি কেন্দ্রের ২৩টি ঝুঁকিপূর্ণ। মিরপুরের ১২৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ১২১টি, পল্লবীর ১৪৫টি কেন্দ্রের মধ্যে ৫৮টি, কাফরুলের ৯০টি কেন্দ্রের সবগুলোই ঝুঁকিপূর্র্ণ। শ্যামলীর ৪১টি কেন্দ্রের মধ্যে ২২টি, দারুসসালামের ৫৭টি কেন্দ্রের মধ্যে ৪৩টি, রূপনগরের ৪২টি কেন্দ্রের মধ্যে ২০টি ঝুঁকিপূর্ণ। গুলশানের ২৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ২১টি, বনানীর ৪৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ৪২টি, বাড্ডার ৮৭টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৮টি, ভাটারার ৬৫টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬০টি, খিলক্ষেতের ২৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১টি এবং ক্যান্টনমেন্টের ১২টি কেন্দ্রের মধ্যে ২টি ঝুঁকিপূর্ণ।
উত্তর-পূর্ব থানার ১০টি কেন্দ্রের মধ্যে ৯টি ও উত্তর-পশ্চিম থানার ২৬টি কেন্দ্রের সবগুলোই ঝুঁকিপূর্ণ। বিমানবন্দর থানার ১০টি কেন্দ্রের সবগুলোই ঝুঁকিপূর্ণ, তুরাগ থানার ৩৫টি কেন্দ্রের মধ্যে ১২টি, দক্ষিণখান থানার ৬২টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬০টি ও উত্তরখান থানার ২৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ৯টি ঝুঁকিপূর্ণ। দক্ষিণে রিটানিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন সাংবাদিকদের বলেন, গোয়েন্দা সংস্থা থেকে ইসিকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সে হিসেবে ইসি ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে সতর্ক দৃষ্টি রাখবে। নিরাপত্তার স্বার্থে গুরুত্বপূর্ণ বা ঝুঁকিপূর্ণ ভোটকেন্দ্রে ৬ জন অস্ত্রসহ পুলিশ একজন এসআই ও ৫ জন এএসআই ও কনস্টেবল, দুইজন অস্ত্রসহ অঙ্গীভ‚ত আনসার এবং ১০ জন লাঠিসহ অঙ্গীভূত আনসার/ ভিডিপি সদস্য ৪ জন নারী ও ৬ জন পুরুষ মোতায়েন থাকবে। সাধারণ ভোটকেন্দ্রে অস্ত্রসহ চারজন পুলিশ (এসআই/এএসআই একজন ও তিনজন কনস্টেবল), দুইজন অস্ত্রসহ অঙ্গীভ‚ত আনসার, ১০ জন লাঠিসহ অঙ্গীভূত আনসার/ভিডিপি সদস্য ৪ জন নারী ও ৬ জন পুরুষ মোতায়েন থাকবে। আবদুল বাতেন বলেন, দক্ষিণে গুরুত্বপ‚র্ণ কেন্দ্র ৭২১টি আর সাধারণ কেন্দ্র ৪২৯টি। নির্বাচনের দিকে যত দিন এগিয়েছে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র তত বেড়েছে। আমরা বলি গুরুত্বপূর্ণ আর আপনারা (মিডিয়া) বলেন ঝূকিপূর্ণ কেন্দ্র। এবার দক্ষিণ সিটিতে ১১৫০ ভোটকেন্দ্রে থাকবে ৬৫৮৯টি ভোটকক্ষ। এ সিটি করপোরেশনে ভোটার ২৪ লাখ ৫২ হাজার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সিটি করপোরেশন নির্বাচন

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন