Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মেলায় চাহিদার শীর্ষে ওয়ালটনের সাইড বাই সাইড ডোরের ফ্রিজ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০২০, ৭:২৩ পিএম

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ক্রেতাদের কাছে হটকেক ওয়ালটনের টেম্পারড গ্লাসের সাইড বাই সাইড ডোর নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর। এর প্রধান কারণ- ডিজাইনে আভিজাত্য, ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী, আন্তর্জাতিকমান সম্পন্ন, দামে সাশ্রয়ী, স্ট্যাবিলাইজার ছাড়া নিশ্চিন্তে চালানো যায় এবং ফ্রিজের ভিতরে খাবার সংরক্ষণের বিশাল জায়গা। পাশাপাশি নগদ মূল্যছাড়সহ নানা সুবিধা থাকায় মেলায় এই মডেলের ফ্রিজ কেনার ধুম পড়েছে।

এছাড়া মেলায় ক্রেতাদের মন জয় করে নিয়েছে ওয়ালটনের ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার, ডিজিটাল ডিসপ্লে, গ্লাস ডোর ও ফাইভ স্টার এনার্জি রেটিংযুক্ত বিভিন্ন মডেলের ফ্রস্ট ও নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর। পাশাপাশি ক্রেতাদের আগ্রহের কেন্দ্রে রয়েছে ওয়ালটনের আপকামিং মডেলের স্মার্ট রেফ্রিজারেটর।

মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে সকল মডেলের ফ্রিজে ক্রেতারা পাচ্ছেন ১০ শতাংশ নিশ্চিত ছাড়। আরো আছে ফ্রি হোম ডেলিভারি, জিরো ইন্টারেস্টে ১২ মাসের ইএমআই (ইক্যুয়াল মান্থলি ইন্সটলমেন্ট) ও সর্বোচ্চ ৩৬ মাসের সহজ কিস্তি সুবিধা।

ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৫ এর আওতায় ‘উইন্টার ফেস্টিভ্যাল’-এ রয়েছে ২০০ শতাংশ ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার সুযোগসহ নিশ্চিত ক্যাশব্যাক। ইতোমধ্যেই মেলায় ওয়ালটনের ফ্রিজ কিনে যাত্রাবাড়ির আব্দুল জলিল ২০০ শতাংশ ও উত্তর শাজাহানপুরের বাসিন্দা মো. শাহনেওয়াজ ১০০ শতাংশ ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন।

ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের (নম্বর-২৬) ইনচার্জ মো. সাইফুল ইসলাম জানান, মেলায় ওয়ালটন ফ্রিজ বিক্রি হচ্ছে আশাতীত। ক্রেতা চাহিদার শীর্ষে রয়েছে ৫৬৩ লিটারের টেম্পারড গ্লাস ডোরের সাইড বাই সাইড নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর। মেলায় বিক্রি হওয়া ওয়ালটন ফ্রিজের প্রায় অর্ধেকই এই মডেলের ফ্রিজ। মেলা উপলক্ষ্যে এই ফ্রিজের দুটি নতুন মডেল এসেছে। ৬৯ হাজার ৯’শ টাকা মূল্যের ডিজিটাল ডিসপ্লে সমৃদ্ধ মডেলটি মেলা থেকে কিনলে দাম পড়ছে ৬২ হাজার ৯১০ টাকা। আর ডিজিটাল ডিসপ্লে ছাড়া ৬৪ হাজার ৯’শ টাকা মূল্যের অন্য মডেলটি মেলায় ৫৮ হাজার ৪১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ওয়ালটন ফ্রিজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকৌশলী গোলাম মুর্শেদ জানান, নতুন বছর ও বাণিজ্য মেলা উপলক্ষ্যে ক্রেতাদের বিশেষ কিছু উপহার দিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির প্রায় অর্ধশত নতুন মডেলের ফ্রস্ট ও নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর এনেছে ওয়ালটন। বেশি চলছে সাইড বাই সাইড ডোর মডেলের রেফ্রিজারেটর। ন্যানো হেলথ কেয়ার প্রযুক্তিতে তৈরি এই ফ্রিজে খাবার সংরক্ষণের জন্য নরমাল ও ডিপ অংশে রয়েছে বিশাল জায়গা। এতে ব্যবহার করা হয়েছে এ্যাডভান্সড কুলিং সিস্টেম, ডায়নামিক এয়ার ফ্লো ও ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির কম্প্রেসর। ফলে, কম বিদ্যুৎ খরচে খাবার ঠান্ডা হয় খুব দ্রুত। কম্প্রেসরে ব্যবহার করা হয়েছে বিশ্ব স্বীকৃত সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব আর৬০০এ রেফ্রিজারেন্ট। ওয়ালটনের সাইড বাই সাইড ডোর ফ্রিজ স্ট্যাবিলাইজার ছাড়াই নিশ্চিন্তে চলে।

ওয়ালটন ফ্রিজ বিভাগের অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর শহীদুজ্জামান রানা জানান, মেলায় প্রায় দেড়শ মডেলের ফ্রস্ট ও নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর, ফ্রিজার ও বেভারেজ কুলার বিক্রি করছে ওয়ালটন। এর মধ্যে রয়েছে ১০৩ মডেলের ফ্রস্ট, ২২ মডেলের নন-ফ্রস্ট, ১১ মডেলের ফ্রিজার ও ২ মডেলের বেভারেজ কুলার। নতুন এসেছে ৩৮ মডেলের ফ্রস্ট ও ৫ মডেলের নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর। এসব ফ্রিজের দাম ১০ হাজার থেকে ৬৯,৯০০ টাকার মধ্যে।

ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে আপকামিং মডেল হিসেবে প্রদর্শিত হচ্ছে আইওটি-বেজড স্মার্ট রেফ্রিজারেটর। আগামী জুন মাসের মধ্যেই এই ফ্রিজ বাজারে আসবে। এর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৯৯ হাজার ৯১০ টাকা। মেলায় বিনামূল্যে এই ফ্রিজের প্রি-বুকিং নেয়া হচ্ছে। এক্ষেত্রে ক্রেতারা পাবেন ১০ হাজার টাকা ডিসকাউন্ট।

আইওটি-বেজড ওই স্মার্ট ফ্রিজে ডিজিটাল ডিসপ্লে, অ্যাডভান্স টেম্পারেচার কন্ট্রোল, টুইন কুলিং, ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার, ডোর ওপেনিং অ্যালার্ম, আয়োনাইজার, হিউম্যান ডিটেক্টর, স্পেশাল আইস মেকিং জোন, ময়েশ্চার কন্ট্রোল জোন, ন্যানো হেলথ কেয়ার, এন্টিফাংগাল ডোর গ্যাসকেট ইত্যাদি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করছে ওয়ালটন।

জানা গেছে, আন্তর্জাতিক মান যাচাইকারি সংস্থা নাসদাত-ইউটিএস টেস্টিং ল্যাব থেকে মান নিশ্চিত হয়ে ওয়ালটনের প্রতিটি ফ্রিজ বাজারে ছাড়া হচ্ছে। ওয়ালটনের রয়েছে বিএসটিআইয়ের ফাইভ স্টার এনার্জি এফিশিয়েন্সি রেটিং। ওয়ালটনের পণ্য সিবি, আরওএইচএস, আরইএসিএইচ, ইএমসি, এসএএসও, ইএসএমএ, জি-মার্ক ইত্যাদি আন্তর্জাতিক টেস্টে উত্তীর্ণ এবং সার্টিফিকেট পেয়েছে। আন্তর্জাতিকমানের ওয়ালটন ফ্রিজ রপ্তানি হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। স্থানীয় ফ্রিজ বাজারে প্রায় ৭৫ শতাংশ মার্কেট শেয়ার রয়েছে ওয়ালটনের। এছাড়া গত বছরের ডিসেম্বরে ষষ্ঠবারের মতো দেশের নাম্বার ওয়ান রেফ্রিজারেটর ব্র্যান্ডের মর্যাদাস্বরূপ ‘বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে ওয়ালটন।

ফ্রিজে এক বছরের রিপ্লেসমেন্ট সুবিধার পাশাপাশি কম্প্রেসরে ১২ বছরের গ্যারান্টি দিচ্ছে ওয়ালটন। দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে সারা দেশে রয়েছে ৭৩টি সার্ভিস পয়েন্ট।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওয়ালটন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ